বিজ্ঞাপন

সাত পর্বের তিন ধারাবাহিক

May 21, 2020 | 6:11 pm

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপনডেন্ট

ঈদ উপলক্ষে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভি সাতদিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। এ সাতদিন অন্যান্য অনুষ্ঠানের পাশাপাশি প্রচার করা হবে তিনটি সাত পর্বের ধারাবাহিক— দুষ্ট ছেলের দল, দুলু বাবুর্চি, অ্যাব-নরমাল।

বিজ্ঞাপন

ঈদের দিন থেকে সাতদিন সন্ধ্যা ৬টা ১৫ মিনিটে প্রচারিত ‘দুষ্ট ছেলের দল’। আদনান আল রাজীব ও রেদওয়ান রনি’র যৌথ রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন রেদওয়ান রনি। নাটকটিতে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম, বাঁধন, শ্যামল মাওলা, মিথিলা, ইশতিয়াক আহমেদ রুমেল, শাহতাজ, আজমেরী আশা, তৌসিফ মাহবুব, নাদিয়া মীম, সুমন পাটওয়ারী, মনিরা মিঠু প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

নাটকটির গল্পে দেখা যায়, দুষ্টামি ভর করে কয়েকজন দুষ্টু ছেলের মাথায়। তারা প্ল্যান করে এক অভিযানের। তাদের পিছনে লাগে আবার মিষ্টি কয়েকজন মেয়ে। অদ্ভুত মজার সব ঘটনা ঘটতে থাকে একের পর এক।

‘দুলু বাবুর্চি’ প্রচারিত হবে সন্ধ্যা ৬টা ৪৫ মিনিটে। বৃন্দাবন দাসের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন সাগর জাহান। নাটকটিতে অভিনয় করেছেন জাহিদ হাসান, আশনা হাবিব ভাবনা, শানারেই দেবী শানু, ফজলুর রহমান বাবু, আ খ ম হাসান, শাহানাজ খুশি, আরফান আহমেদ প্রমুখ।

‘দুলু বাবুর্চি’র গল্পে দেখা যাবে, আব্দুল করিম ওরফে দুলু দেশ ছাড়ার আগে থেকেই গ্রামের বিয়ে, জন্মদিনসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে স্ব-উদ্যোগে রান্নার কাজটি করতো। কেউ কেউ তখন থেকেই তাকে দুলু বাবুর্চি নামেও সম্বোধন করতো। এবার মধ্যপ্রাচ্য থেকে ফিরে এসে সে তার পুরনো শখের কাজটিকেই পেশা হিসেবে গ্রহণ করেছে। তবে গতানুগতিক বাবুর্চির বাইরে গিয়ে চাহিদা অনুযায়ী প্যাকেজ সেবা প্রদান করে থাকে সে। এজন্য দুলু নারী পুরুষ সমন্বয়ে একটি টিম গঠন করেছে। কেউ রান্নার কাজে সহযোগিতা করে, কেউ গীত গায়, কেউ বা সঙ সেজে অভিনয় করে। তবে নামের শেষে বাবুর্চি শব্দটি নিয়ে বেশ আপত্তি রয়েছে দুলুর। তার যুক্তি সে একজন শেফ মানে পাচক। এ নিয়ে মাঝে মধ্যে কারো কারো সাথে অপ্রীতিকর পরিস্থিতিরও সৃষ্টি হয়।’

ঈদের সাতদিন রাত ১২ টা ৫ মিনিটে প্রচারিত হবে ‘অ্যাব-নরমাল’। মাসুদ সেজানের রচনা ও পরিচালনায় এই নাটকে অভিনয় করেছেন মাহফুজ আহমেদ, মেহজাবিন, মিশু সাব্বির, ডা: এজাজ, শামীমা নাজনীন, সিফাত শাহ্রিন, আল আমিন সবুজ, শহীদ উন নবী, মুনিয়া ইসলাম, তন্দ্রা, রিমি করিম প্রমুখ।

নাটকটির গল্পে দেখা যায়, তোফা সবকিছুতেই তার বউকে সন্দেহ করে। বউ এ্যানী এটা কিছুতেই মেনে নিতে পারছে না। প্রতিনিয়ত সব কাজের ব্যাখ্যা দিতে দিতে সে ক্লান্ত। সত্য কথা বললেও সেটা মানতে পারছে না তোফা। একসময় এ্যানী তাকে অ্যাব-নরমাল বলে তিরস্কার করলে তোফা চুপ হয়ে যায়। তোফার সন্দেহ হয়, আসলেই সে অ্যাব-নরমাল হয়ে যাচ্ছে কিনা! তার পরিচিত মানুষগুলো কি ভালো আছে?

সারাবাংলা/এজেডএস/

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন