বিজ্ঞাপন

অক্টোবরে বিশ্বকাপ নাকি আইপিএল?

May 22, 2020 | 10:34 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট বৈশ্বিক সংকটের মধ্যেই ইউরোপে প্রতিযোগিতামূলক ফুটবল মাঠে ফিরেছে। তবে ক্রিকেট পুনরায় কবে মাঠে ফিরবে তা এখনো অনিশ্চিত। জুলাই-আগস্টে সিরিজ আয়োজনের চেষ্টা করছে ইংল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা। তবে বিষয়গুলো এখনো চূড়ান্ত নয়। এদিকে, ক্রিকেটের আকর্ষণীয় ও জনপ্রিয় দুই টুর্নামেন্ট টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও আইপিএলের ভাগ্য ঝুলে আছে।

বিজ্ঞাপন

আইপিএলের এবারের আসরটি মাঠে গড়ানোর কথা ছিল গত মার্চের ২৯ তারিখে। করোনাভাইরাসের কারণে টুর্নামেন্টটি পিছিয়ে গেছে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য। এদিকে, অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনের কথা রয়েছে অক্টোবরে। অস্ট্রেলিয়ার করোনা পরিস্থিতিতে টুর্নামেন্টটি নির্ধারিত সময়ে অনুষ্ঠিত হওয়া নিয়ে শঙ্কিত অনেকেই।

সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব ধরনের বিমান চলাচল বন্ধ করেছে অস্ট্রেলিয়া সরকার। তারপর কেউ অস্ট্রেলিয়া গেলেও তাকে বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেনটাইনে থাকতে হবে। সব মিলিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন নিয়ে যথেষ্টই শঙ্কা দেখা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোতে বলা হচ্ছিল, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে দিতে আইসিসিকে চাপ দেবে ভারত। যাতে ওই ফাঁকা সময়টাতে আইপিএল আয়োজন করা যায়। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআইয়ের কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধুমাল অবশ্য জানালেন, আইসিসিকে কোনো ধরনের চাপ দিবে না ভারত। তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে গেলে ওই সময়ে আইপিএল আয়োজনের চেষ্টা করবে বিসিসিআই।

অরুণ ধুমাল বলেন, ‘বিসিসিআই কেন বিশ্বকাপ স্থগিত বা পেছাতে চাপ দেবে? যদি আইসিসি ও অস্ট্রেলিয়া সরকার বিশ্বকাপ আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেয়, আত্মবিশ্বাসী থাকে তাহলে সেটা তাদের সিদ্ধান্ত। বিসিসিআই কোনো কিছুতেই চাপ দিবে না। তবে যদি সময়টা ফাঁকা থাকে তবে আমরা চিন্তা করব (আইপিএল আয়োজনের)।’

এদিকে, ভারতের জনপ্রিয় গণমাধ্যম ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’ যা বলছে সেটা অরুণ ধুমালের কথার সঙ্গে মেলালে বলতে হবে অক্টোবর-নভেম্বরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নয়, আইপিএলই মাঠে গড়াচ্ছে। ভারতীয় গণমাধ্যমটির এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিতের সিদ্ধান্ত দিতে যাচ্ছে আইসিসি। টেলিকনফারেন্স বৈঠকের মাধ্যমে আগামী সপ্তাহেই নাকি বিশ্বকাপ স্থগিতের চূড়ান্ত ঘোষণা দেওয়া হবে।

সারাবাংলা/এসএইচএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন