বিজ্ঞাপন

৫০ দিনেই শেষ হবে একাদশ শ্রেণির ভর্তি কার্যক্রম

May 23, 2020 | 11:36 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: মাধ্যমিক (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশে দেরি হলেও, একাদশ শ্রেণির ভর্তি কার্যক্রম দ্রুত শেষ করা হবে। ফল প্রকাশের ৫০ দিনের মধ্যে ভর্তি কার্যক্রম শেষ করা হবে বলে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড সূত্রে জানা গেছে।

বিজ্ঞাপন

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক হারুন অর রশীদ বলেন, ‘আমরা যথা সময়ে ফল প্রকাশ করতে না পারলেও ভর্তির কাজ দ্রুত শেষ করতে চাই। তাহলে লকডাউনের ঘাটতি পূরণ করা সম্ভব হবে। সেক্ষেত্রে আগস্ট থেকে ক্লাশ শুরু করে দেওয়ার একটি পরিকল্পনাও আমাদের রয়েছে।’ জুনের প্রথম সপ্তাহেই ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানান তিনি।

তবে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অপর একটি সূত্র বলছে, জুনের ৭ থেকে ১০ তারিখের মধ্যে শুরু হবে একাদশের ভর্তি কার্যক্রম। এরপর এটি ২৩ জুলাই পর্যন্ত চলবে। প্রথম ধাপের ভর্তি আবেদন আগামী ১৯ জুন পর্যন্ত গ্রহণ করা যাবে। এরপর আরও দুটি ধাপে ভর্তি কাজ চলবে। এর আগে ৩১ মে এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে।

বিজ্ঞাপন

প্রতিবছর ৬০ দিনের মধ্যে এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হলেও এই করোনাকালে সেটি সম্ভব হয়নি। যথাসময়ে ওএমআর শিট বোর্ডে পাঠাতে না পারায় এমনটা হয়েছে বলে বোর্ড সূত্রে জানা গেছে।

আন্তঃশিক্ষাবোর্ড সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক বলেন, ‘শেষ পর্যন্ত ফল প্রকাশ করা যাচ্ছে। সেটি করার পরপরই আমরা ভর্তি কার্যক্রম শুরু করে দেবো। এ বছর এটি পুরোপুরিভাবে অনলাইনে করা হবে। পুরো কাজটি শেষ করতে আমরা সময় নেব ১ মাস ২০ দিন।

এদিকে ৩১ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করবেন।

ফল প্রকাশ প্রসঙ্গে মু. জিয়াউল হক বলেন, ‘এবারের পরীক্ষার ফল অনলাইনে ফল প্রকাশ করা হবে। শিক্ষার্থীরা ঘরে বসেই তাদের ফল পাবে। করোনা সংক্রমণের ঝুঁকির মধ্যে স্কুলে গিয়ে ফল আনতে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।’

উল্লেখ্য, এ বছর ২৮ হাজার ৮৮৪টি প্রতিষ্ঠান থেকে ৯টি সাধারণ বোর্ডের অধীনে এসএসসিতে ১৬ লাখ ৩৫ হাজার ২৪০ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। এছাড়াও দাখিলে ২ লাখ ৮১ হাজার ২৫৪ জন এবং এসএসসি ভোকেশনালে ১ লাখ ৩১ হাজার ২৮৫ জন পরীক্ষা দেয়। পরীক্ষা ফেব্রুয়ারি মাসের ৩ তারিখে শুরু হয়ে মার্চের ৫ তারিখ শেষ হয়।

সারাবাংলা/টিএস/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন