বিজ্ঞাপন

নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক প্রস্তাব প্রত্যাখান করেছে চীন

May 28, 2020 | 12:19 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

হংকংকে চীনের জাতীয় নিরাপত্তা আইনের আওতায় আনাকে কেন্দ্র করে উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের (ইউএনএসসি) অধিবেশন আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের সেই প্রস্তাব প্রত্যাখান করেছে চীন। যুক্তরাষ্ট্রের কূটনীতিকদের বরাতে বৃহস্পতিবার (২৮ মে) এ খবর জানিয়েছে এএফপি।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, বুধবার (২৭ মে) যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, হংকংয়ের ব্যাপারে বেইজিং যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা গভীর উদ্বেগের। শুধু তাই নয় চীনের এই অবস্থানের কারণে আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তার বিঘ্ন ঘটতে পারে। তাই এ ব্যাপারে চীনের অবস্থান ব্যাখা করতে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক আয়োজন করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

এর জবাবে, জাতিসংঘে নিযুক্ত চীনের বিশেষ প্রতিনিধি ঝাং জুন বুধবার (২৭ মে) সন্ধ্যায় এক টুইটার বার্তায় জানিয়েছেন, নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের ব্যাপারে দেওয়া যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাবনা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

তিনি আরও বলেন, হংকংকে চীনের জাতীয় নিরাপত্তা আইনের আওতায় আনার বিষয়টি সম্পূর্ণ অভ্যন্তরীণ, তাই এ ব্যাপারে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক প্রয়োজন নেই।

এদিকে, হংকংয়ের আইন পরিষদকে পাশ কাটিয়ে এই বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চলটিকে বৃহস্পতিবার (২৮ মে) চীনের জাতীয় নিরাপত্তা আইনের অধীনে আনার কাজ চূড়ান্ত হতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানিয়েছে।

অন্যদিকে, হংকং থেকে অধিকার আন্দোলনের কর্মীরা বার্তাসংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, চীনের প্রস্তাবিত জাতীয় নিরাপত্তা আইনের আওতায় আসলে হংকং ১৯৯৭ সাল থেকে চর্চিত স্বাধীনতা থেকে বিচ্যুত হবে।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৪ সালের চীন-ব্রিটেন সমঝোতা অনুসারে হংকংকে সর্বোচ্চ স্বাধীনতা এবং স্বায়ত্তশাসনের অধিকার দিয়ে ৫০ বছরের জন্য চীনের অধীনে স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে। ১৯৯৭ সালে বাস্তবায়িত হওয়ায় ওই চুক্তির মেয়াদ ২০৪৭ পর্যন্ত রয়েছে। কিন্তু, এখন হংকংকে চীনের জাতীয় নিরাপত্তা আইনের অধীনে আনলে তা হবে ও চুক্তির বরখেলাপ। এর ফলে, হংকং বিশেষ মর্যাদা হারিয়ে আর দশটা সাধারণ চীনের শহরে পরিণত হবে।

আরও পড়ুন -

চীনের জাতীয় নিরাপত্তা আইনের আওতায় আসছে হংকং

হংকংয়ে চীনা আগ্রাসনবিরোধী বিক্ষোভ থেকে তিন শতাধিক আটক

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন