বিজ্ঞাপন

বিনিয়োগ সুবিধা কমলো ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমে

May 29, 2020 | 11:44 am

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক স্কিমে বিনিয়োগের লাগাম টানলো সরকার। এ খাতে একক নামে বিনিয়োগ ঊর্ধ্বসীমা ৩০ লাখ টাকা থেকে কমিয়ে ১০ লাখ টাকা করা হয়েছে। পাশাপাশি যুগ্ম-নামে বিনিয়োগের ঊর্ধ্বসীমা ৬০ লাখ টাকা কমিয়ে ২০ লাখ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সূত্র জানায়, বর্তমানে ব্যাংক আমানতে সুদহার ৬ শতাংশ হলেও ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের কিংবা সঞ্চয়পত্রে সুদহার সর্বোচ্চ ১১.২৮ শতাংশ। এতে করে এ খাতে অনেক ধনী ব্যক্তিরা বিনিয়োগ করছে। পাশাপশি এ খাত থেকে ঋণ নিলে সরকারকে বেশি পরিমাণ সুদ পরিশোধ করতে হচ্ছে। এতে করে সরকারের খরচ বেড়ে যাচ্ছে। ফলে সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এর আগে, গত ২০ মে স্বাক্ষরিত এ-সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন বৃহস্পতিবার (২৮ মে) জারি করে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, এ আদেশ জারির দিন থেকে কার্যকর হবে। এনবিআর সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

বিজ্ঞাপন

জানা যায়, জাতীয় সঞ্চয় স্কিমটি অনলাইন তথা অটোমেশন হলে বিনিয়োগ করার সময় একটি হিসাব (অ্যাকাউন্ট) খুলতে হবে। হিসাব খোলার জন্য বাধ্যতামূলক করা হয়েছে জাতীয় পরিচয়পত্র। এক্ষেত্রে দুই লাখ টাকার বেশি ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংকে জমা দিতে হবে চেকের মাধ্যমে। সঙ্গে ইলেকট্রনিক কর শনাক্তকরণ নম্বর (ই-টিআইএন) সনদের কপিও দিতে হবে। একইসঙ্গে হিসাবধারীদের অনলাইন ডাটাবেজের আওতায় আনা হচ্ছে।

সারাবাংলা/জিএস/এমও

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন