বিজ্ঞাপন

মানুষের কল্যাণে নিবেদিত হওয়ার শিক্ষা দিন: প্রধানমন্ত্রী

May 31, 2020 | 12:25 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: শুধু নিজে ভালো থাকা নয়, দেশের ও দেশের মানুষের জন্য কাজ করে সবাইকে নিয়ে যেন ভালো থাকা যায়, শিক্ষার্থীদের সে শিক্ষা দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিজ্ঞাপন

শিক্ষকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, যে শিক্ষাটা দেবেন, এই শিক্ষাটা যেন শুধু নিজের ভালো থাকা না হয়। দেশের কল্যাণে কাজ করা, মানুষের কল্যাণে কাজ করার যে শিক্ষা জাতির পিতা আমাদের বারবার শিখিয়েছেন, সেই শিক্ষা দেবেন। মানুষের কল্যাণে যেন তারা নিবেদিতপ্রাণ হয়, সেই শিক্ষাই যেন তারা গ্রহণ করে আপনাদের কাছ থেকে। দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ আমাদের ছাত্রছাত্রীরা লেখাপড়া শিখে মানুষের মতো মানুষ হয়ে বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে একটা মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করবে, সেটাই আমি চাই।

আরও পড়ুন- শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে না এখনই, জানালেন প্রধানমন্ত্রী

বিজ্ঞাপন

রোববার (৩১ মে) সকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল ঘোষণার সূচনা বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর সকাল ১১টায় এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার বিস্তারিত ফলাফল ফেসবুক লাইভে তুলে ধরেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এখন সারাবিশ্বে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। আমি আশা করি, এই ভাইরাসের আঘাত থেকে সারাবিশ্ব ও আমাদের দেশ অচিরেই মুক্তি পাবে। যেকোনো সংকটে আমি বলি, আত্মবিশ্বাস রাখতে হবে। যেকোনো পরিস্থিতি আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে মোকাবেলা করতে হবে। আমি সবসময়ের জন্য বলব, এটা মনে রাখতে হবে— আমরা মুক্তিযুদ্ধে বিজয় অর্জন করেছিলাম। আমরা বিজয়ী জাতি।

বিজ্ঞাপন

সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, এই করোনাভাইরাসের মধ্যেও আমরা দুর্যোগ মোকাবিলা করলাম। ঘূর্ণিঝড় এসেছে, আমরা মোকাবিলা করেছি। কাজেই যেকোনো ঝড়-ঝাপটা বা যেকোনো তুফান আসুক, যেকোনো পরিস্থিতি আসুক, আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে আমরা তা মোকাবিলা করব এবং সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করব। ঠিক এখন যেভাবে সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করে যাচ্ছে, সেভাবে সবাই কাজ করে আমরা জাতির উত্তরণ ঘটাব— এটাই আমাদের লক্ষ্য থাকবে, এটাই আমাদের সিদ্ধান্ত।

জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার প্রত্যয় জানান বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, দেশকে ও দেশের মানুষকে ভালোবাসা, মানুষের প্রতি কর্তব্যপরায়ণতা— এই শিক্ষাগুলো আমাদের শিক্ষার্থীদের দিতে হবে। আমার প্রতি অন্যের কর্তব্য যেমন অধিকার, আমার যেটা কর্তব্য সেটাও অন্যের অধিকার— এভাবে যেন সবাই চিন্তা করে। দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ আমাদের ছাত্রছাত্রীরা লেখাপড়া শিখে মানুষের মতো মানুষ হবে, এটাই আমি চাই।

বিজ্ঞাপন

শিক্ষার্থীদের প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি সবসময় এটা মনে করি, আমাদের ছাত্রছাত্রীরা অনেক বেশি মেধাবী। একটু সুযোগ পেলে তারা মেধা বিকাশের মাধ্যমে নিজেদের প্রমাণ করে। আর সেই সুযোগটাই আমরা করে দিতে চাচ্ছি।

এসএসসি ও সমমানের ফল ঘোষণার বিষয়টি তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ধীরে ধীরে অর্থনীতি চালু রাখার জন্য কিছু কিছু জায়গা খুলে দিচ্ছি। কিন্তু আমরা হয়তো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এখনই খুলব না। আমরা ধাপে ধাপে এগুতে চাচ্ছি যেন এই করোনাভাইরাসে তারা (শিক্ষার্থী) আক্রান্ত না হয়। এরা আমাদের ভবিষ্যৎ। কাজেই আমাদের ভবিষ্যৎকে ঝুঁকিতে ফেলতে পারি না। তাই করোনা পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পেলে পর্যায়ক্রমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উন্মুক্ত করব। আপাতত তাদের অনুরোধ করব, সবাই যেন ঘরে বসে পড়ালেখা করে।

বিজ্ঞাপন

প্রসঙ্গত, এ বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হয় ৩ ফেব্রুয়ারি। তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ হয় ২৭ ফেব্রুয়ারি। আর ব্যবহারিক পরীক্ষা ২৯ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে শেষ হয় ৫ মার্চ। এবার মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২০ লাখ ৪৭ হাজার ৭৭৯ জন। করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোদে দীর্ঘ ছুটির কারণে নির্ধারিত সময়ে (পরীক্ষার পর ৬০ দিন) ফলপ্রকাশ করা সম্ভব হয়নি।

সারাবাংলা/এনআর/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন