বিজ্ঞাপন

‘স্বাস্থ্যবিধি না মানলে সরকার কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হবে’

June 1, 2020 | 7:40 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সরকার সবকিছু সীমিত পরিসরে খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেও জনগণ স্বাস্থ্যবিধি না মানলে যদি পরিস্থিতির অবনতি হয় এবং জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকির কারণ হয়ে দাঁড়ায়, তাহলে সরকার কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (১ জুন) নিজের সরকারি বাসভবনে এক ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় তিনি গণপরিবহন চলাচল ‍শুরুর কথা উল্লেখ করে সংশ্লিষ্টদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে গাড়ি চালানোর অনুরোধ জানিয়েছেন।

স্বাস্থ্যবিধি ও শর্ত মেনে গাড়ি চালাতে মালিক ও চালকদের প্রতি অনুরোধ জানানোর পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, ভিজিলেন্স টিম, মোবাইল কোটসহ টার্মিনাল কর্তৃপক্ষকেও নজরদারি করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, প্রতিটি গাড়িতে যেন অর্ধেক আসন খালি থাকে, ৬০ শতাংশের বেশি বাড়তি ভাড়া যেন না রাখা হয়, স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ ও মাস্কের ব্যবহার যেন নিশ্চিত হয়— এই বিষয়গুলো আপনারা তদারকি করবেন।

বিজ্ঞাপন

যাত্রীদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, অতিরিক্ত যাত্রী হিসেবে গাড়িতে উঠবেন না। অর্ধেক আসন খালি রাখবেন। শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখবেন। সংক্রমণ থেকে নিজে বাঁচুন, অপরকে বাঁচান। হুড়োহুড়ি ও অতিরিক্ত যাত্রী হওয়া স্বাস্থ্যবিধি না মানলে এ সঙ্কট আরও ঘনীভূত হতে পারে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমাদের অসচেতনতা এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে পরিস্থিতির যদি অবনতি হয়, তাহলে আবারও কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে সরকার বাধ্য হবে। পরিস্থিতি যদি আমাদের কারণে জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়ায়, তাহলে সরকার আবারও কঠিন সিদ্ধান্তই নেবে।

সরকারের এই সেতুমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের মানবিক প্রয়াস ও সাহসী নেতৃত্বের কারণে আল্লাহর রহমতে বাংলাদেশ একটি মানুষও না খেয়ে মারা যায়নি। বিশ্বব্যাপী দেশরত্ন শেখ হাসিনার মানবিক প্রয়াস ও সাহসী পদক্ষেপ প্রশংসিত হচ্ছে। আর বিএনপি এর মধ্যে খুঁজে পাচ্ছে সমন্বয়হীনতা। নিজেরা অসহায় কর্মহীন মানুষের পাশে দাঁড়াতে নির্লজ্জভাবে ব্যর্থ হয়ে দায়িত্বহীন বক্তব্য রাখছে। এতে করোনা মোকাবিলায় ফ্রন্টটলাইন যোদ্ধা ও আক্রান্তদের মনোবল নষ্ট হচ্ছে। আমি সংকটে তাদের দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দলের ভূমিকা পালনের আহ্বান জানাচ্ছি।

‘এদেশে দুর্যোগে সবার আগে আওয়ামী লীগই ছুটে গেছে, এটাই আওয়ামী লীগের ঐতিহ্য,’— বলেন ওবায়দুল কাদের।

সরকার জনস্বাস্থ্য সুরক্ষায় স্বাস্থ্যবিধি মানতে যে নির্দেশনা দিয়েছে, জীবিকার স্বার্থে সবাইকে সেগুলো যথাযথভাবে পালন করার জন্য আহ্বান জানান তিনি। বলেন, ‘সাহসী নেতৃত্ব আমাদের সবার পাশে আছেন। তিনি হলেন দেশরত্ন শেখ হাসিনা। তার প্রতি আস্থা রাখুন। ভরসা রাখুন মহান আল্লাহর প্রতি। মহামারির এই নিদানকাল আমরা কাটিয়ে উঠব, ভোরের আলোয় আলোয় আলোকিত হবে দশ দিগন্ত। ইনশাল্লাহ, আবারও সুদিন আসবে।’

ফাইল ছবি

সারাবাংলা/এনআর/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন