বিজ্ঞাপন

করোনা পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যেতে হতে পারে ক্রিকেটারদের

June 3, 2020 | 3:16 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

গেল ৩০ মে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি উঠে গেছে। এতে করে দেশও অনেকটাই স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে ফিরে গেছে। কিন্তু স্বাভাবিক হয়নি কেবল করোনা পরিস্থিতি। এখনো আগের রুপেই রয়ে গেছে এবং দিন যতই যাচ্ছে ততই রুদ্ররুপ ধারণ করছে। উদ্ভুত পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে এখনই ক্রিকেট ফেরাতে পারছেনা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবি। তবে ধীরে ধীরে ফেরানোর পরিকল্পনা তারা হাতে নিয়েছে। তার অংশ হিসেবে অনুশীলনে নামার আগে ক্রিকেটারদের কোভিড-১৯ পরীক্ষার কথা ভাবছে লাল সবুজের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ এই প্রশাসন।

বিজ্ঞাপন

করোনাভাইরাস নামক মহামারি এখনও বিশ্বব্যাপী তার দোর্দন্ড দাপট অব্যাহত রেখেছে। রাত পোহালেই দেশে ও দেশের বাইরে প্রতিদিনই নতুন নতুন সংক্রমণ ও মৃত্যুর খবর। কোনোভাবেই যেন অদৃশ্য এই অপশক্তির লাগাম টেনে ধরা যাচ্ছে না! কিন্তু এরমধ্যেই আগামি মাস থেকে ফিরছে ক্রিকেট। জুলাইয়ে ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার সিরিজ দিয়ে ৫ মাস পর মাঠে গড়াচ্ছে ২২ গজের লড়াই।

এমতাবস্থায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও ক্রিকেট ফেরাতে উদ্যোগ নিয়েছে। আর এর প্রথম ধাপ হিসেবে গোটা বিসিবি জীবাণুনাশ করা হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে এর আওতায় আসবে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, জাতীয় ক্রিকেট একাডেমি, জিসমেনিয়াম ও ইনডোরসহ ক্রিকেটারদের ব্যবহার্য্য সকল অবকাঠামোই। জীবাণুনাশ কার্যক্রম শেষে মিরপুর শের-ই-বাংলা যখন অনুশীলনের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত হবে তখন প্লেয়াররা অনুশীলন শুরু করতে পারবেন। তবে তার আগে ক্রিকেটারদের কোভিড-১৯ পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যেতে হতে পারে।

বিজ্ঞাপন

শুধু তাই নয়, অনুশীলনের লক্ষ্যে ক্রিকেটাররা যখন ভেন্যুতে আসবেন তাদের সবাইকে চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে ও আইসিসি’র গাইডলাইন অনুসরণ করে তবেই অনুশীলনে অংশ নিতে হবে।

সারাবাংলাকে এতথ্য দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান।

তিনি জানালেন, ‘আমাদের অফিস খুলেছে। এই মুহুর্তে ক্রিকেট বোর্ড জীবাণুমুক্ত করার চেষ্টা করছি। আমরা পরিকল্পনা করছি আমাদের পরিস্থিতি ভালো হলে অনুশীলনের ব্যবস্থা করব। তো সেজন্য আগে থেকেই এই ব্যবস্থা গ্রহণ করছি। যেমন প্লেয়াররা যখন আসবে, ওদের সঙ্গে যারা থাকবে ওদের কি হবে, ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে এবং আইসিসির গাইডলাইন মেনেই কাজটা শুরু করেছি। কিন্তু পরিস্থিতি ভালো না হওয়া পর্যন্ত আমরা ঝুঁকি নিচ্ছি না। আমরা আইসোলেশনে যাব না, তবে প্লেয়ারদের করোনা পরীক্ষা করার চিন্তা-ভাবনা আছে। আসলে এখন আমরা মাত্রই প্রস্তুতি নিচ্ছি। দেখি পরিস্থিতি কোন দিকে যায়।’

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন