বিজ্ঞাপন

সাবানের প্যাকেটে ১৫ হাজার ইয়াবা: আসামি কারাগারে

June 5, 2020 | 2:17 am

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে আসা ‘নট ফর সেল’ লেখা স্যাভলন সাবানের প্যাকেটে করে আনা ১৫ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনায় জাকির হোসেন নামে এক মাদক বিক্রেতাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।
বিজ্ঞাপন
বৃহস্পতিবার (৪ জুন) বিকালে শুনানি শেষে  ঢাকা ম্যাট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেন এ  আদেশ দেন।
বিজ্ঞাপন
এসময় মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা আসামি জাকির হোসেনকে একদিনের রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করেন। এরপর তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক এ আদেশ দেন।
এরআগে গত ১ জুন বিকেলে রাজধানীর কারওয়ান বাজার থেকে একটি কাভার্ড ভ্যানের ভেতর থেকে ইয়াবাগুলো জব্দ করা হয়েছে। র‌্যাব-২-এর স্পেশাল কোম্পানি কমান্ডার পুলিশ সুপার মহিউদ্দিন ফারুকী এ তথ্য জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, ইয়াবাগুলো কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে আসা একটি কাভার্ড ভ্যানের পেছনের দরজার ভেতরে ইয়াবা ঢুকিয়ে ঝালাই করে আনা হয়। এ ঘটনায় গ্রেফতার মো. জাকির হোসেন (২৮) প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, ইয়াবার চালানটির মূল মালিক রায়হান নামে এক ব্যক্তি। গত ৩ মার্চ পিকনিক বাসের আড়ালে ২০ হাজার পিস ইয়াবার চালানটি রায়হান নামে ওই ব্যক্তির ছিল। মুখ দিয়ে গিলে পাকস্থলীতে করে আনা ইয়াবা ট্যাবলেটের বেশ ক’টি চালান র‍্যাব-২-এর হাতে ধরা পড়ে, যার মূল ডিলার রায়হান। জব্দ করা ইয়াবার গন্তব্য ছিল গাজীপুর জেলার চন্দ্রা এলাকায়।
জাকির জানান, কাভার্ড ভ্যানটির মালিক রায়হান নামে মাদক ব্যবসায়ী। গাড়ীটি থেকে মাদক উদ্ধারের সময় মেশিন দিয়ে ঝালাই কেটে গাড়ির দরজার পাল্লার ভেতর থেকে ১৫ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। ইয়াবাগুলি স্যাভলন সাবানের প্যাকেটে ভরা ছিল। সাবানের প্যাকেটের গায়ে লেখা ‘Not for sale’। রোহিঙ্গাদের জন্য বিনামূল্যে যেসব সাবান সরবরাহ করা হয়, তা হাত ঘুরে কালো বাজারে চলে আসে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দেওয়ার জন্য কালোবাজারে আসা সেসব সাবানের প্যাকেট মাদক ব্যবসায়ীরা সংগ্রহ করে তাতে বিশেষ কায়দায় ইয়াবার প্যাকেট ভরে গাড়ির বডির ভেতর ঢুকিয়ে ঝালাই করে নিয়ে আসে।
ওই ঘটনায় জাকিরসহ মাদকের মূল ডিলারদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে তেঁজগাও থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।

সারাবাংলা/এআই/

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন