বিজ্ঞাপন

‘পিএসজি তারকা বিক্রি করে না, তাদের কিনে!’

June 6, 2020 | 4:50 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

কাতার যেসময় পিএসজি কিনে নিজেদের অধীনে নিয়ে আসে, সে সময় থেকেই সকল ধরনের অর্থনৈতিক সমস্যা দূর হয়ে যায় ফ্রান্সের ক্লাবটির। আর এরপর একে একে বিশ্বের নামকরা বড় তারকাদের দলে ভিড়িয়েছে তারা। এক সময় ইব্রাহিমোভিচ, ডেভিড বেকহামরাও খেলেছেন এই ক্লাবে। আর বর্তমান সময়ের অন্যতম বড় দুই তারকা নেইমার জুনিয়র এবং কিলিয়ান এমবাপেও খেলছেন এখানেই। তাই তো বেশ জোর গলায় পিএসজি'র খেলোয়াড় অ্যান্ডের হেরেরা বললেন, 'পিএসজি তারকা বিক্রি করে না, তাদের কিনে!'

বিজ্ঞাপন

২০১৭ সালে বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে পাড়ি জমানো নেইমারকে দুই মৌসুম পরেই আবারও ক্লাবে ফেরাতে মরিয়া বার্সেলোনা। বারে বারে কাতালান ক্লাবটির প্রাণভোমরা লিওনেল মেসিও তাগাদা দিয়েছেন। তবে পিএসজির সঙ্গে দর কষাকষিতে পেরে ওঠেনি বার্সা। অন্যদিকে ২০১৭ সালেই মোনাকোর কাছ থেকে কিলিয়ান এমবাপেকে দলে ভেড়ায় পিএসজি।

বিজ্ঞাপন

এমবাপে পিএসজিতে যোগ দেওয়ার আগে থেকেই রিয়াল মাদ্রিদ এই ফরাসি তারকার প্রতি নিজেদের আগ্রহ প্রকাশ করে আসছিল। তবে সে সময় দুই পক্ষের মধ্যে বনিবনা না হওয়ার এমবাপে শেষ পর্যন্ত পাড়ি জমান পিএসজিতেই। তবে রিয়াল মাদ্রিদে খেলার স্বপ্ন ছেড়ে দেননি বিশ্বকাপজয়ী এমবাপে। গুঞ্জন আছে রিয়ালের সঙ্গে মৌখিক চুক্তিও আছে এমবাপের। ২০২১ সালে ব্ল্যাঙ্কোসদের দলে যোগ দিবেন এমবাপে গুঞ্জনটা এমনই।

তবে নেইমারের ব্যাপারটি পুরোটাই ভিন্ন। বার্সেলোনা সরাসরি প্রস্তাব দিয়েও বার বার প্রত্যাখ্যান হয়েছে ফ্রান্সের ক্লাবটির কাছে। আর এর পেছনে রয়েছে তাদের পাহাড়ের মতো দৃঢ় অর্থনীতি। আর্থিকভাবে বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী ক্লাব বর্তমানে পিএসজি। আর তাই তো অর্থের জন্য কোনো খেলোয়াড়কে দল ছাড়া করে না ক্লাবটি। এমনটাই দাবী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে পিএসজিতে নাম লেখানো অ্যান্ডের হেরেরার।

তিনি বলেন, 'আমি আসলে জানি না ক্লাব কীভাবে, কত উপার্জন করে। তবে আমি এটা জানি যে আমাদের ক্লাবটি আর্থিকভাবে অনেক শক্তিশালী। তাই অর্থের জন্য অন্ততপক্ষে পিএসজি থেকে কোনো খেলোয়াড়কে চলে যেতে আমি দেখছি না। নেইমার এবং এমবাপে ক্লাবের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার অংশ, এছাড়াও তারা ক্লাবে অনেক খুশিও আছে। তাই তারা চলে যাবে বলে আমার মনে হয় না।'

হেরেরা আরও বলেন, 'আমরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং সংবাদমাধ্যমে প্রায়ই দেখি এমবাপেকে কিনে নেবে রিয়াল, আবার নেইমার বার্সায় চলে যাবে। আসলে এসব বিষয়ে আমরা তেমন মাথা ঘামাই না। পিএসজি তারকা বিক্রি করে না, তাদের কিনে! এমনই এই ক্লাবটি। পিএসজি অর্থনৈতিকভাবে অনেক শক্তিশালী। আর এক সঙ্গে নেইমার এবং এমবাপে দুইজনকেই দলে রাখার সামর্থ্য আছে।'

গেল মৌসুমে ইন্টার মিলান থেকে ধারে পিএসজিতে খেলতে আসেন মাউরো ইকার্দি। আর চুক্তি অনুযায়ী নতুন মৌসুমে ইকার্দিকে পুরোপুরি নিজেদের করে নিতে পারত পিএসজি। আর বাস্তবে ঘটেছেও সেটিই। ইকার্দি পিএসজির সঙ্গে নতুন চুক্তি স্বাক্ষর করে বনে গেছেন পুরোদস্তর নেইমার, এমবাপেদের সতীর্থ।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন