বিজ্ঞাপন

আইসিইউর সেন্ট্রাল মনিটরিং আছে কিনা হাইকোর্টকে জানানোর নির্দেশ

June 8, 2020 | 1:09 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সারাদেশের আইসিইউর সেন্ট্রাল মনিটরিং আছে কি না তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে করোনা রোগীদের জন্য কয়টা আইসিইউ, ও কয়টা বেড রয়েছে তা আগামী ১০ জুন বুধবারের মধ্যে হাইকোর্টকে জানাতে বলেছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (৮ জুন) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আবেদনেরপক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ইয়াদিয়া জামান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা।

বিজ্ঞাপন

পরে আইনজীবী ইয়াদিয়া জামান আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) এই সময়ে দেশের সব বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউ সরকারিভাবে অধিগ্রহণের নির্দেশনা চেয়ে গতকাল রোববার রিট দায়ের করা হয়। একইসঙ্গে করোনা মোকাবিলায় অনলাইনে সেন্ট্রাল বেড ব্যুরো চালুরও নির্দেশান চাওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ডেপুটি রেজিস্ট্রার ডা. আব্দুল আল মামুনের পক্ষে আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইয়াদিয়া জামান রিটটি দায়ের করেন।

পরে আইনজীবী ইয়াদিয়া জামান বলেছিলেন, দিন দিন করোনা পরিস্থিতি ভয়ানক হচ্ছে। করোনা রোগীদের জন্য আইসিইউ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে এরই মধ্যে ভারতের তিনটি প্রদেশে প্রয়োজন অনুযায়ী প্রাইভেট হসপিটাল অধিগ্রহণ করেছে দেশটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা দফতর। বিষয়টি উল্লেখ করে বাংলাদেশেও সব প্রাইভেট হাসপাতালের আইসিইউ অধিগ্রহণ করতে সরকারের প্রতি নির্দেশনা চেয়ে আবেদন করা হয়েছে। একই সঙ্গে সেন্ট্রাল বেড ব্যুরো চালুরও নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সেন্ট্রাল বেড ব্যুরো’র ধারণাটি ব্যাখ্যা করে এই আইনজীবী বলেন, সারাদেশে কোন হাসপাতালে কয়টি বেড খালি আছে, কোথায় খালি নেই— তার সব তথ্য এক জায়গায় থাকবে। এ ব্যবস্থা চালু থাকলে রোগী ভর্তির আগেই স্বজনরা জানতে পারবেন, কোথায় বেড খালি আছে। এতে করে রোগী নিয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরতে হবে না।

রিটে স্বাস্থ্য সচিব, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সচিব এবং ঢাকা ও চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট ছয় জনকে বিবাদী করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এজেডকে/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন