বিজ্ঞাপন

গরমে চুলের যত্ন

June 9, 2020 | 1:40 pm

লাইফস্টাইল ডেস্ক।।

প্রচন্ড গরম পড়েছে। এই গরমে ত্বক ও চুলের সৌন্দর্য বজায় রাখতে দরকার বাড়তি যত্নের। গরমকালে অতিরিক্ত ঘামের ফলে চুলের গোড়া ভিজে যায়। এতে চুলের গোড়া নরম হয়ে চুল পড়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়। আবার বাইরে প্রচন্ড ধুলোবালি হওয়ার কারণে চুলে সহজেই ময়লা জমে। এতেও চুল পড়া বেড়ে যায়। আর কারো কারো খুশকির সমস্যা তো সারাবছরই থাকে। খুশকিও চুল পড়ার অন্যতম প্রধান কারণ।

বিজ্ঞাপন

ঘরোয়া কিছু যত্ন নিলেই এসময় চুল পড়া কমানো সম্ভব। আসুন জেনে নেই, এইসময় চুলের যত্নে যা করবেন-

ভেষজ উপাদানে চুলের সুরক্ষা

বিজ্ঞাপন

চুল পড়া ও খুশকি দূর করতে ভেষজ উপাদানে তৈরি ঘরোয়া প্যাক ব্যবহার করা যেতে পারে। মেথি চুলের জন্য খুবই উপকারি। মেথি সারারাত ভিজিয়ে রেখে ব্লেন্ড করে নিন। খুশকির সমস্যা থাকলে মেথি বাটার সঙ্গে লেবুর রস নিন। টকদই ও পাকা কলা কিংবা ডিমের সাদা অংশ মেথিতে যোগ করুন। এই মিশ্রণটি চুলে রেখে এক থেকে দুই ঘন্টা অপেক্ষা করুন। এরপর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। মেথি ভেজানো পানি চুলের কন্ডিশনার হিসেবে ব্যবহার করা ভালো।

এই মিশ্রণটি সপ্তাহে দুই দিন ব্যবহার করতে হবে। এছাড়া সপ্তাহে অন্তত একদিন তেল গরম করে চুলের গোড়ায় মাসাজ করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

গরমকালে চুলের যত্নে কিছু বিষয় মনে রাখা ভালো-

চুল যদি ঘেমে যায়...

বিজ্ঞাপন

চুলের ভেতরে যদি ঘেমে যায় তাহলে ভেজা চুল বেঁধে না রেখে ফ্যানে শুকিয়ে নিন। ভেজা চুল বেঁধে রাখলে চুল পড়া বাড়ে।

ভেজা চুল আঁচড়ানো উচিত না

বিজ্ঞাপন

গোসল করার পর ভেজা অবস্থায় চুল আঁচড়ানো উচিত না। তখন চুলের গোড়া এমনিতেই নরম থাকে। ফলে সহজেই চুল পড়ে যায়।

প্রতিদিন শ্যাম্পু নয়

গরমকালে ধুলোবালি ও অতিরিক্ত ঘামের কারণে চুল অপরিষ্কার হয় সহজেই। এজন্য অনেকেই প্রতিদিন শ্যাম্পু ব্যবহার করেন। এতে চুলের ক্ষতি হয়। এসময় বাইরে গেলে মাথা আলাদা কাপড় দিয়ে ঢেকে নিতে পারেন। এতে চুলে ময়লা লাগবে কম। সপ্তাহে দুই থেকে তিনদিন শ্যাম্পু ব্যবহার করা ভালো।

পুষ্টিকর খাবার খান

তাজা শাক-সবজি, ফল ও বাদাম ভেতর থেকে পুষ্টি যোগায়। চুলের সৌন্দর্য ধরে রাখতে তাই নিয়মিত এই খাবারগুলো খেতে হবে। তাছাড়া করোনাভাইরাস ঠেকাতে চিকিৎসকরা পুষ্টিকর খাবারের পরামর্শ দিচ্ছেন। ফলে এসময় পুষ্টিকর খাবারদাবারের কোন বিকল্প নেই।

এছাড়া প্রয়োজনের অতিরিক্ত কন্ডিশনার চুলে ব্যবহার করা উচিত না। বারবার চুল আঁচড়ালেও চুল পড়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

সারাবাংলা/টিসি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন