বিজ্ঞাপন

বিএনপি-জামায়াত এক বৃন্তে দুই ফুল

March 5, 2018 | 5:16 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

বিজ্ঞাপন

ঢাকা: আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত দল দুইটির জন্ম একই জায়গা থেকে। এরা পাকিস্তানের প্রেতাত্মা। এরা চায় যে কোনো মূল্যে বাংলাদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে।

সোমবার (৫ মার্চ) রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে স্যামসন এইচ চৌধুরী মিলনায়তনে সাপ্তাহিক সংবাদ মাধ্যম ‘ক্রাইম জগৎ’র উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাহবুব উল আলম হানিফ আরও বলেন, বাংলাদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে পারলে, দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের উপর আঘাত আসবে, তাহলে পাকিস্তান লাভবান হবে। এরা সব সময় পাকিস্তানের মদদে এই দেশে সব ধরনের অপতৎপরতা চালিয়ে আসছে।

তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রী কেন কারাগারে আছেন- এতিমের টাকা মেরে খাওয়ায় দুর্নীতির মামলায় তিনি কারাগারে আছেন। আদালত তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে এই মামলার রায় দিয়েছেন। কিন্তু এটা নিয়ে আজকে বিএনপি-জামায়াত বাংলাদেশের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতাকে নষ্ট করে ধ্বংসস্তুপে পরিণত করতে চায়।

বিজ্ঞাপন

তারা (বিএনপি) তাদের অপরাধকে সরকারের ওপর চাপানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে। খালেদা জিয়ার পরিবার দুর্নীতি করেছে, এটা দেশের মানুষ সবাই জানে, বলেন হানিফ।

দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ায় তার দলের জনপ্রিয়তা ও ভোট বাড়ছে বলে বিএনপি নেতারা মন্তব্য করেছেন। এই বিষয়ে তিনি বলেন, চুরি করে কারো জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পায় এমন ঘটনা কেউ শুনেছেন! তাও আবার এতিমের টাকা। আর এতে নাকি তার জনপ্রিয়তা বাড়ছে। আসলে তাদের বলার উদ্দেশ্য অন্য- এগুলো বলার উদ্দেশ্য হচ্ছে বেগম জিয়া কারাগারেই থাক। কারাগারে থাকলে বিএনপির জনপ্রিয়তা বাড়বে। এটা বুঝেই আসলে তারা খালেদা জিয়াকে কারাগারে রাখতে চায়। দুর্নীতিবাজ নেতা-নেত্রীকে বিএনপি নেতারাও চাচ্ছে না। সেটা তাদের কথা বার্তায় প্রমাণিত হয়েছে। দেশের জনগণ তো দূরের কথা।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ থেকে দুর্নীতি, সন্ত্রাস, উগ্র-মৌলবাদ নির্মূল করেত হলে দেশের একমাত্র অপ্রতিরোধ্য নেত্রী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কোনো বিকল্প নেই। আজকে শুধু বাংলাদেশে নয়, গোটা বিশ্বের কাছে আস্থার জায়গা হচ্ছে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা। এ বিষয়ে সংবাদ মাধ্যম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে জানিয়ে হানিফ বলেন, এ জন্য সংবাদ মাধ্যমকে সচেতন ও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে বলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

ক্রাইম জগতের প্রকাশক ও সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উদ্ধোধনী বক্তব্য রাখেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক। বিশেষ অতিথি হিসেবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী, মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মহিউদ্দিন আহম্মেদ, ক্রীড়া সংগঠক আলী আসগর খান, দুদুকের সাবেক ডিজি ব্রি. জেনারেল (অব.) এম. এইচ সালাহউদ্দিন, সাপ্তাহিক ক্রাইম জগতের উপদেষ্টা বনশ্রী বিশ্বাস স্মৃতি কণা, ইলিয়াস কাঞ্চন প্রমুখ।

সারাবাংলা/এনআর/এটি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন