বিজ্ঞাপন

করোনাকালে জিংকসমৃদ্ধ খাবারের নেই জুড়ি

June 14, 2020 | 11:17 am

লাইফস্টাইল ডেস্ক।।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধের প্রধান ধাপ হলো ব্যক্তিগত সচেতনতা গড়ে তোলা এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো। এর ফলে করোনাভাইরাস সংক্রমিত হলে শ্বাসযন্ত্র ও পরিপাকতন্ত্রের যে মারাত্মক সমস্যা দেখা দেয় তা প্রতিরোধ করা সম্ভব।

বিজ্ঞাপন

শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার কোষ তৈরি করে জিংক। আমাদের দেশের বেশিরভাগ মানুষের শরীরে জিংকের ঘাটতি দেখা যায়। শুধু আমাদের দেশে নয়, বিশ্বের বেশিরভাগ মানুষের দেহে জিংকের অভাব আছে বলে গবেষকরা দাবি করেন। স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীরা বলছেন, করোনাকালে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে জিংকের বিকল্প নেই।

জিংকসমৃদ্ধ খাবারগুলো সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-

বিজ্ঞাপন

মাংস

লাল মাংস জিংকের চমৎকার উৎস। ১০০ গ্রাম গরুর মাংসে ৪.৮ মিলিগ্রাম জিংক থাকে। জিংক ছাড়াও গরুর মাংসে থাকে ভিটামিন বি১২, আয়রন ও প্রোটিন। ভেড়ার মাংসেও জিংক থাকে।

বিজ্ঞাপন

শস্য জাতীয় খাবার

তিল, তিসি, কুমড়া, শিমের বিচি, মটরশুটিতে প্রচুর পরিমাণে জিংক থাকে। এই বীজগুলো নিয়মিত খাওয়া উচিত।

বিজ্ঞাপন

বাদাম

জিংকের অন্যতম ভালো উৎস বাদাম। চীনা বাদাম, কাজু বাদাম ও কাঠ বাদাম পরিমাণমতো খেতে হবে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে, হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে ও চুলের সৌন্দর্য বজায় রাখতে বাদাম খুবই উপকারি। জিংক ছাড়াও ভিটামিন কে, ভিটামিন এ ও ফলেট আছে বাদামে। ২৮ গ্রাম বাদামে ১৬ মিলিগ্রাম জিংক পাওয়া যায়।

বিজ্ঞাপন

দুধ জাতীয় খাবার

দুধ জাতীয় খাবার যেমন টকদই, পনির, মাখনে প্রচুর পরিমাণে জিংক থাকে। এই খাবারগুলো হাড় ও দাঁতও মজবুত করে। ২৫০ মিলিগ্রাম ফ্যাটবিহীন দুধে ১.২ মিলিগ্রাম জিংক থাকে। আর ২৫০ মিলিগ্রাম ফ্যাটবিহীন টকদইয়ে ২.৩৮ মিলিগ্রাম জিংক থাকে।

করোনাকালে জিংকসমৃদ্ধ খাবারের নেই জুড়ি

ওটস

সকালের নাস্তা হিসেবে ওটস কম-বেশি সবার কাছেই বেশ জনপ্রিয়। ওটসে জিংক ছাড়াও থাকে ফাইবার, ভিটামিন বি৬ ও ফলেট। কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করে শরীরে উপকারি ব্যাকটেরিয়া উৎপন্ন করার ক্ষেত্রে ওটস অত্যন্ত উপকারি। মাঝারি আকারের আধা বাটি ওটসে ১.৩ মিলিগ্রাম জিংক থাকে।

মাশরুম

জিংক সমৃদ্ধ উপাদানগুলোর মধ্যে মাশরুম অন্যতম। মাশরুমে ক্যালরি কম থাকে বলে ওজন বেড়ে যাওয়ারও ভয় নেই। জিংক ছাড়াও এতে থাকে ভিটামিন এ, সি, ই এবং আয়রন। ২১০ গ্রাম মাশরুমে ১.২ মিলিগ্রাম জিংক থাকে।

ডার্ক চকলেট

ডার্ক চকলেটও জিংকের অন্যতম উৎস। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে, রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে ও রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে ডার্ক চকলেট। ১০০ গ্রাম ডার্ক চকলেটে ৩.৩ মিলিগ্রাম জিংক থাকে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এইসময় পুষ্টিকর খাবারের পাশাপাশি পর্যাপ্ত ঘুম ও ব্যায়ামের পরামর্শ দিচ্ছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

ছবি- ইন্টারনেট

সারাবাংলা/টিসি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন