বিজ্ঞাপন

কবি সুফিয়া কামালের জন্মদিন আজ

June 20, 2020 | 12:34 pm

সারাবাংলা ডেস্ক।।

দেশে নারী আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ ও প্রথিতযশা কবি সুফিয়া কামালের ১০৯তম জন্মদিন আজ। সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও গণতান্ত্রিক আন্দোলনের পুরোধা সুফিয়া কামালের জন্ম ১৯১১ সালের ২০ জুন বরিশালের শায়েস্তাবাদে। পারিবারিক প্রচণ্ড রক্ষণশীলতার মধ্যে বড় হয়েও তিনি স্বশিক্ষায় শিক্ষিত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

কবি সুফিয়া কামালের জন্মদিন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাণী দিয়েছেন। বাণীতে তিনি বলেন, ‘কবি সুফিয়া কামালের সৃজনশীলতা ছিল অবিস্মরণীয়। দেশ, প্রকৃতি, গণতন্ত্র, সামাজ-সংস্কার, নারীমুক্তি এবং শিশুতোষ রচনাসহ বিভিন্ন বিষয়ে তার লেখনী আজও পাঠককে আলোড়িত ও অনুপ্রাণিত করে।’

যুগ যুগ ধরে চলে আসা নারী নির্যাতন ও অপমানের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠভাবে দাঁড়িয়েছিলেন কবি সুফিয়া কামাল। সেই প্রকাশ ছিল তার লেখনী ও কর্মে। সাহিত্যচর্চার পাশাপাশি ভাষা আন্দোলন, গণঅভ্যুত্থান ও মুক্তিযুদ্ধ— দেশের প্রতিটি আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন এবং ‘জননী সাহসিকা’ উপাধিতে ভূষিত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

ভাষা আন্দোলনে শুধু নিজে নয়, অন্য নারীদেরও অংশ নিতে উদ্বুদ্ধ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেয়েদের প্রথম হলের নাম ‘রোকেয়া হল’ নামকরণের দাবী জানান। ১৯৬৯ সালের গণঅভ্যুত্থানে অংশ নেন এবং মহিলা সংগ্রাম কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হন। ১৯৭০ সালে মহিলা পরিষদ প্রতিষ্ঠা করেন।

স্বাধীন বাংলাদেশে নারীজাগরণ ও সমঅধিকার প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে উজ্জ্বল ভূমিকা রেখেছেন কবি সুফিয়া কামাল। ১৯৯০ সালে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের শরিক হয়েছেন, কারফিউ উপেক্ষা করে নীরব শোভাযাত্রা বের করেছেন। মুক্তবুদ্ধির পক্ষে এবং সাম্প্রদায়িকতা ও মৌলবাদের বিপক্ষে আমৃত্যু সংগ্রাম করেছেন তিনি।

১৯৩৭ সালে সুফিয়া কামালের গল্প সংকলন ‘কেয়ার কাঁটা’ প্রকাশিত হয়। ১৯৩৮ সালে তার প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘সাঁঝের মায়া’র মুখবন্ধ লেখেন কাজী নজরুল ইসলাম। দেশভাগের সময় নারীদের জন্য প্রকাশিত সাময়িকী ‘বেগম পত্রিকা’র সম্পাদক ছিলেন। এছাড়া ছায়ানট, কচি-কাঁচার মেলাসহ বিভিন্ন সংগঠনের সভানেত্রীর দায়িত্ব পালন করেন কবি সুফিয়া কামাল।

সারাবাংলা/টিসি/

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন