বিজ্ঞাপন

স্ত্রীর কবরে চির নিদ্রায় শায়িত কামাল লোহানী

June 20, 2020 | 11:37 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

সিরাজগঞ্জ: অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাতিঘর, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অন্যতম সংগঠক, ভাষা সংগ্রামী ও কিংবদন্তি সাংবাদিক কামাল লোহানী উল্লাপাড়ার নিজগ্রাম সোনতলা কবরস্থানে স্ত্রী দীপ্তি লোহানীর কবরে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন। শনিবার (২০ জুন) রাত পৌনে ১০টার দিকে সোনতলা কবরস্থানে জানাজা নামাজ শেষে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁকে দাফন করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এ সময় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অনুষ্ঠিত জানাজায় সিরাজগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য তানভীর ইমাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ফিরোজ মাহমুদ, উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী শফিকুল ইসলাম শফি, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আরিফুজ্জামান, আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার গোলাম মোস্তফা, সলপ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান প্রকৌশলী শওকত ওসমানসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশ নেয়।

এর আগে তাঁর মরদেহবাহী অ্যাম্বুলেন্সটি রাত সোয়া ৯টার দিকে সোনাতলায় নিয়ে আসা হয়। এ সময় প্রয়াত কামাল লোহানীর স্বজন, ভক্ত ও শুভান্যুধায়ীদের মাঝে এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। পরে স্থানীয় সংসদ সদস্য তানভীর ইমাম, জেলা ও উপজেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রয়াত কামাল লোহানীর কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

বিজ্ঞাপন

প্রয়াত কামাল লোহানীর ছোট ভাই মোস্তাক লোহানী বলেন, ‘সোনতলা কবরস্থানে তার স্ত্রী দীপ্তি লোহানীর কবরেই তাকে দাফন করা হলো। এ কবরস্থানে আমাদের বাবা মুছা আলী খান লোহানী, মা রিজিয়া লোহানী, ভাই দেলাল লোহানীসহ আমাদের সকল প্রয়াত আত্মীয়-স্বজন শায়িত আছেন।

শনিবার (২০ জুন) সকালে মহাখালীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় কামাল লোহানীর মৃত্যু হয়। ৮৬ বছর বয়সী এই কিংবদন্তি সাংবাদিক ফুসফুসের জটিলতা ও ডায়াবেটিসে ভুগছিলেন। শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় তাকে ১৭ জুন প্রথমে রাজধানীর পান্থপথে হেলথ অ্যান্ড হোপ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে শুক্রবার (১৯ জুন) নমুনা পরীক্ষায় তার শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে। এরপর তাকে গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের আইসিইউতে নেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন