বিজ্ঞাপন

সব রোগীকে সমানভাবে দেখতে হবে: ওবায়দুল কাদের

June 28, 2020 | 7:29 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: চিকিৎসার ক্ষেত্রে ধনী-গরিব বিবেচনায় না নিয়ে সব রোগীকে সমানভাবে দেখার জন্য চিকিৎসকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘চিকিৎসার ক্ষেত্রে ধনী-গরীব কিংবা ভিআইপি-সাধারণের মধ্যে ব্যবধান তৈরি করা যাবে না। সব রোগীকে সমানভাবে দেখতে হবে। শেখ হাসিনার সরকার তথাকথিত ভিআইপি কালচারে বিশ্বাসী নয়। এ ধরনের চর্চাকে সরকার কঠোরভাবে নিরুৎসাহিত করে।’

রোববার (২৮জুন) সরকারি বাসভবনে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে সরকারের এই সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘অনেকে অভিযোগ করছেন, হাসপাতালগুলোতে ভিআইপিরা সেবা পাচ্ছেন। তাদের প্রতিই স্বাস্থ্যকর্মীদের মনোযোগ বেশি। তাহলে আমি প্রশ্ন রাখতে চাই— সাধারণ মানুষ যাবে কোথায়?’

তিনি বলেন, ‘সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ করব সব রোগীকে সমানভাবে দেখবেন। রোগীকে রোগী হিসেবে দেখবেন। কোনো ব্যবধান তৈরি করবেন না। শেখ হাসিনার সরকার তথাকথিত ভিআইপি কালচারে বিশ্বাসী নয়। সরকার এ সংকটে এমন চর্চাকে নিরুৎসাহিত করে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘অভিযোগ আছে, এখনো রোগীরা হাসপাতালে ছোটাছুটি করতেই প্রাণ হারাচ্ছে। আমি হাসপাতালগুলোর ব্যবস্থাপনা ও সমন্বয় বৃদ্ধিতে স্বাস্থ্য বিভাগের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।’

যারা করোনা আক্রান্ত হয়ে বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন, তাদের চিকিৎসা ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ পেতে টেলিমেডিসিন সেবার পরিধি আরও বাড়ানোর অনুরোধ জানান তিনি।

সরকারের দুর্নীতি বিরোধী অবস্থান মনে করিয়ে দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা আগেই বলেছি, অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে শেখ হাসিনার সরকারের অবস্থান স্পষ্ট। অপরাধীর দলীয় পরিচয় থাকলেও ছাড় নেই। আমি সরকারের দুর্নীতিবিরোধী অবস্থান আবারও মনে করিয়ে দিয়ে বলতে চাই— শুধু স্বাস্থ্যখাতেই নয়, যেকোনো খাতের অনিয়ম-অন্যায়-দুর্নীতি রোধে দেশরত্ন শেখ হাসিনা জিরো টলারেন্স নীতিতে অটল।’

করোনা সংকটের এই সময়ে দেশের কয়েকটি জেলায় বন্যা দেখা দিয়েছে। তাই এই কঠিন সময়ে বন্যার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য  আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের।

ফাইল ছবি

সারাবাংলা/এনআর/টিসি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন