বিজ্ঞাপন

আর্থিক দিক বিবেচনায় দ্রুত লিগ শুরুর আবেদন ফুটবলারদের

June 29, 2020 | 7:57 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

করোনাভাইরাসের প্রভাবটা দেশের ফুটবলের ওপর পড়েছে বেশ ভালোভাবেই। থমকে গেছে বাংলাদেশের পেশাদার ফুটবল লিগগুলো। প্রায় ৪ মাসে গিয়ে ঠেকেছে এই স্থবিরতার, এখনও সেভাবেই আছে সবকিছু। আর এতেই দেশের ফুটবলাররা আর্থিক সংকটের মুখে পড়েছে। তাই তো বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারশন-বাফুফের কাছে আবেদন দ্রুতই যেন লিগগুলো মাঠে ফেরানো হয়।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (২৯ জুন) বাফুফে ভবনে বাফুফে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠককালে ফুটবলাররা তাদের দাবি তুলে ধরেন। এবং অনুরোধ করেন যেন আগামি দুই মাসের ভেতরে লিগ শুরু করা হয়।

করোনাভাইরাসের আক্রমণে বাংলাদেশের পেশাদার ফুটবল লিগের সঙ্গে সঙ্গে বাতিল হয়েছে সকল ফুটবল লিগ। ২য় বিভাগ। ৩য় বিভাগ থেকে শুরু করে সব ফুটবল লিগ বাতিল হওয়ায় আর্থিক সংকটে পড়েছে খেলোয়াড়রা। আর এতেই তাদের পরিবার চালানো কষ্টকর হয়ে পড়ছে। এ ব্যাপারে জাতীয় দলের খেলোয়াড় আশরাফুল ইসলাম রানা এবং মামুনুল ইসলাম সংবাদমাধ্যমকে লিগ ফেরানোর আবেদনের কথা জানিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

আশরাফুল ইসলাম রানা জানান, ' প্রেসিডেন্টের কাছে আমরা অনুরোধ করেছি পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলে যেন লিগগুলো শুরু করা হয়। আর একটা বিষয় হচ্ছে ৪ মাস ধরে আমরা যারা ফুটবলার আছি তারা বেকার হয়ে পড়েছি কারণ পেশাদার যে লিগ ছিল তা বাতিল হয়ে গেছে। আমরা যারা চূক্তিবদ্ধ খেলোয়াড় আছি তারা হয়ত ক্লাবের কাছ থেকে কিছু টাকা পাচ্ছি কিন্তু অন্যরা যারা আছে ফুটবল খেলে তারা অনেক আর্থিক সমস্যায় আছে। চুক্তিবদ্ধ ফুটবলার ছাড়া অন্যান্য স্তরের যেসকল ফুটবলাররা আছে তাদের অর্থনৈতিক অবস্থা খুবই খারাপ। তারা তাদের পরিবারও চালাতে পারছে না। তাই আর্থিক এই সংকটের কথা আমরা প্রেসিডেন্টকে জানিয়েছি।'

আর্থিক দিক বিবেচনায় দ্রুত লিগ শুরুর আবেদন ফুটবলারদের

রানা আরও জানান, 'যেহেতু এবারের লিগ বাতিল হয়ে গেছে, তাই আমরা ফেডারেশন এবং ক্লাব কর্মকর্তাদের সমঝোতার মাধ্যমে একটা গাইড লাইন তৈরি করার অনুরোধ করেছি। আর সেই সঙ্গে যেন আর্থিক দিকটাও সমাধান হয়। এ ব্যাপারে ক্লাবের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে প্রেসিডেন্ট আমাদের আশ্বস্ত করেছেন।'

পেশাদার ফুটবলারদের আর্থিক কষ্টের কথা জানিয়েছেন মামুনুল ইসলামও। তিনি জানান, 'প্রায় ৪ মাস আমরা ফুটবলের বাইরে। অর্থনৈতিক দিক দিয়ে আমরা সবাই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি। আমরা যারা চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড় তারাও ধরেন কিছুদিন চালিয়ে যেতে পারবে কিন্তু অন্যরা বেশিদিন চালিয়ে যেতে পারবে না। তো সবার কথা চিন্তা করে আমরা কথা বলতে চাই। যেহেতু লিগ বন্ধ হয়ে গেছে। তাই দুই-তিন মাসের ভেতর যদি লিগটা শুরু করা যায় তাহলে আমাদের সকল ফুটবলারদের আর্থিক দিকটা ঠিক হয়ে যাবে। কারণ আমরা ফুটবলাররা কিন্তু অন্য কিছুই করি না। এ ব্যাপারে প্রেসিডেন্ট সাহেব জানিয়েছেন তিনি ক্লাবগুলোর সঙ্গে কথা বলবেন।'

আর্থিক দিক বিবেচনায় দ্রুত লিগ শুরুর আবেদন ফুটবলারদের

লিগ শুরুর ব্যাপারে বাফুফে প্রেসিডেন্ট কাজী সালাউদ্দিন জানান, 'দেশে লিগ গড়ানোর নির্ভর করবে করোনাভাইরাসের পরিস্থিতির উপরে। দেখেন করোনা তো কারো এপয়েন্টমেন্ট নিয়ে আসেনি, আবার যাওয়ার সময়ও কারো এপয়েন্টমেন্ট নিয়ে যাবে না। তাই লিগ শুরুর ব্যাপারটি নির্ভর করবে দেশের করোনা পরিস্থিতির উপর। এবং সরকারের সিদ্ধান্তের ওপরে। একটা একটা বিষয় নিয়ে আমরা আগাচ্ছি। আর লিগ তো হবেই। লিগসহ সকল ফুটবল শুরুর আগে সরকার কি কি পরামর্শ দেয় সেগুলো নিয়েও আমাদের কাজ করতে হবে।'

এছাড়া ২য়, ৩য় বিভাগের লিগের খেলোয়াড়দের আর্থিক ব্যাপারটিতে কষ্ট পাচ্ছেন বাফুফে প্রেসিডেন্টও। খেলোয়াড়দের আর্থিক সাহায্যের ব্যাপারে মামুনুল আরও জানান, 'পেশাদার চুক্তিবদ্ধ ফুটবলার ছাড়াও ২য়, ৩য় বিভাগের লিগের খেলোয়াড়দের আর্থিক ব্যাপারটি নিয়ে প্রেসিডেন্ট (কাজী সালাউদ্দিন) দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এবং তিনি চেষ্টা করবেন সরকারের পক্ষ থেকে যে প্রণোদনা দেওয়া হয় সেটা আমাদের দুঃস্থ ফুটবলারদের দেওয়ার চেষ্টা করবেন।'

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন