বিজ্ঞাপন

সচিবের নির্দেশে দূর হলো বাধা, পদ্মা রেল সংযোগে ফের চলছে ট্রাক

June 29, 2020 | 10:52 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বালুর ট্রাক সড়কে উঠতে না দেওয়ায় কাজ বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছিল পদ্মা রেল সংযোগ প্রকল্পের। ঢাকা থেকে যশোর পর্যন্ত পদ্মাসেতু হয়ে রেল সংযোগ প্রকল্পের কাজ চলছে। এ কাজে নদী থেকে ট্রাকে বালু তুলে প্রকল্প এলাকায় ফেলা হচ্ছিল। ওভারলোড নেওয়া ট্রাকগুলোর কারণে সড়ক নষ্ট হচ্ছে এমন অভিযোগে রেললিংকের চলাচল স্থগিত করা হয় বলে জানান সড়ক প্রকৌশলীরা।

বিজ্ঞাপন

পরে মন্ত্রণালয় সচিবের নির্দেশে সড়ক ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়। ৩ জুলাইয়ের মধ্যে সরেজমিন পরিদর্শন করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন প্রকৌশলীরা।

সোমবার (২৯ জুন) সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের (সওজ) বাধায় পদ্মারেল সংযোগ প্রকল্পের মাদারীপুর থেকে ভাঙ্গা অংশে ট্রাক যেতে পারছিলো না। কয়েক ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের যোগযোগের মাধ্যমে পরে সওজ আবার ট্রাক যেতে দেয়।

বিজ্ঞাপন

রেল সংযোগ প্রকল্প কর্মকর্তারা বলছেন, ‘বালুর ট্রাক আসতে পারছিলো না সওজের বাধায়। এক্সপ্রেসওয়ের সর্ভিস রোড ব্যবহার করতে দিচ্ছিল না তারা।’ এ নিয়ে রেল সংযোগ প্রকল্পের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। তারও আগে উভয় কর্তৃপক্ষের মধ্যে বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছিল ৩ জুলাইয়ের মধ্যে সরেজমিন পরিদর্শন করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। কিন্তু ট্রাক চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত হয়নি। এমন অবস্থায় রেল লিংক প্রকল্পের ট্রাক চলাচল বাধার মুখে পড়ে।

রেল লিংকের আরেকজন কর্মকর্তারা জানান, লোড বহনের শর্ত মেনে প্রকল্পের ট্রাক চলাচল করতে দিতে রাজি হয় সওজ। এ নিয়ে সরেজমিন পরিদর্শন করে তারা ৭ দিন পরে সিদ্ধান্ত জানাবে বলে জানায়। এখন প্রকল্পের কাজ তো ৭ দিন বন্ধ রাখা যায় না। এরই মধ্যে নির্ধারিত লোড মেনে ট্রাক সড়কে উঠতে গেলে বাধা হয়। এক্সপ্রেসওয়ের সার্ভিস রোডে উঠতে গেলেই বাধা দেওয়া হয়। বিকল্প কোন সড়ক নেই– ট্রাক নেওয়ার। এ অবস্থায় কাজ বন্ধ হয়ে পড়ে আছে বলে মাদারীপুর থেকে রেললিংক প্রকল্পের একজন প্রকৌশলী জানান।

এক্সপ্রেসওয়ে প্রকল্প পরিচালক ও সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান জানান, ওভারলোডেড ট্রাকের কারণে রাস্তাটা নষ্ট হয়ে যাচ্ছিলো। এই বাস্তবতায় গতকাল একটি কমিটি করে রোড ভিজিট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ৩ জুলাইয়ের মধ্যে পরিদর্শন সম্পন্ন হবে। তার আগ পর্যন্ত এ ধরণের ওভারলোড নেওয়া ট্রাক চলাচল স্থগিত থাকার কথা ছিলো। দু’টি প্রকল্পের দায়িত্বে সেনাবাহিনী রয়েছে। তারা বিষয়টি দেখছে। তবে মন্ত্রণালয় সচিবের নির্দেশে রেললিংক প্রকল্পের ট্রাক চলাচল শুরু হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সারাবাংলা/এসএ/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন