বিজ্ঞাপন

সেরে উঠেছেন সাইফউদ্দিন

June 30, 2020 | 1:33 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

প্রায় ১০-১২ দিন সর্দি-জ্বরে ভোগার পর সেরে উঠেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের প্রতিশ্রুতিশীল পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাউফউদ্দিন। এখন তিনি পুরোপুরিই সুস্থ। জ্বর, ঠান্ডা ও সর্দিসহ কোনো জটিলতাই তার আর নেই।

বিজ্ঞাপন

করোনাকালে ক্রিকেটারদের স্বাস্থের তথ্য জানতে বিসিবি প্রথম যেদিন ‘কভিড-১৯ ওয়েল বিয়িং’ অ্যপটির কার্যক্রম শুরু করল সেদিনই জানা গিয়েছিল মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন জ্বরে আক্রান্ত। সেদিন বিসিবি’র ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড ইনফরমেশন বিভাগের ম্যানেজার নাসির উদ্দিন নাসু জানিয়েছিলেন, অ্যাপের মাধ্যমে দেওয়া ১৮টি প্রশ্নের উত্তর শেষে তাকে ‘রেড ক্যাটাগরি’তে ফেলা হয়েছে। তিনি এও জানিয়েছিলেন ‘রেড ক্যাটাগরি’ মানেই তিনি বা কেউ করোনাক্রান্ত নন। এর মানে হচ্ছে তার শরীরের কোথাও কোনো সমস্যা আছে। এবং সেটা বোঝা মাত্রই তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, তার শরীরের জ্বর।

তাহলে কি তিনি করোনায় আক্রান্ত? সংবাদ মাধ্যমের করা এমন প্রশ্নে নাসু বলেছিলেন, তারা জানতে পারেননি সাইফউদ্দিন আদৌ করোনাক্রান্ত কিনা। সংগত কারণেই সংবাদ মাধ্যমকেও তিনি জানাতেও পারেননি। শুধু এটুকুই জানাতে সক্ষম হয়েছিলেন যে তিনি জ্বরে আক্রান্ত।

বিজ্ঞাপন

এর প্রায় সপ্তাহ বাদে জানা গেল তরুণ এই টাইগার অলরাউন্ডার এখন পুরোপুরি সুস্থ। প্রায় ১০- ১২ দিন সর্দি, জ্বরে ভোগার পরে তিনি পুরোপুরি সেরে উঠেছেন।

মঙ্গলবার (৩০ জুন) সংবাদ মাধ্যমকে এতথ্য দিয়েছেন বিসিবি'র প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী।

তিনি জানালেন, ‘ওর ১০-১২ দিন যাবৎ সর্দি, জ্বর ছিল। এখন সুস্থ হয়ে উঠেছে। এমনিতেই ঠিক হয়ে গেছে।’

তবে সাইফউদ্দিন করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন কিনা সে ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য দিতে পারেননি দেবাশীষ। কেননা সাইফউদ্দিনের নিজ জেলা ফেনীতে নাকি বেশ কয়েকদিন করোনা টেস্ট বন্ধ ছিল।

‘করোনা ছিল কিনা জানি না। কারণ ওর করোনা পরীক্ষা করা হয়নি। এতদিন ফেনীতে টেস্ট বন্ধ ছিল।’

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন