বিজ্ঞাপন

খাশোগি হত্যাকাণ্ড: ২০ সৌদির অনুপস্থিতিতেই তুরস্কে বিচার শুরু

July 3, 2020 | 4:53 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যায় অভিযুক্ত ২০ সৌদি কর্মকর্তার বিচার শুরু করছে তুরস্ক। শুক্রবার (৩ জুন) স্থানীয় সময় সকালে ইস্তাম্বুলের একটি আদালতে ওই সৌদি নাগরিকদের অনুপস্থিতিতেই বিচার শুরু হয়।

বিজ্ঞাপন

২০১৮ সালের ২ অক্টোবর দুপুরে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে অবস্থিত সৌদি কনস্যুলেটে খুন হয়েছিলেন সাংবাদিক জামাল খাশোগি।

অভিযুক্তদের মধ্যে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের দুই সাবেক সহযোগীও রয়েছে। সৌদি রাজপরিবারের নানা কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করে কলাম লিখতেন খাশোগি। তাই একসময় সৌদি রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ হলেও তার ওপর চরমভাবে ক্ষুব্ধ ছিলেন সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান।

বিজ্ঞাপন

এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গত বছরের ডিসেম্বরে পাঁচ জনের প্রাণদণ্ডের রায় ঘোষণা করে সৌদি আরব। যদিও সম্প্রতি খবর এসেছে, খাশোগির পরিবার দোষী ব্যক্তিদের ক্ষমা করে দিয়েছেন।

তবে শুরু থেকেই তুরস্ক আলাদাভাবে এই হত্যাকাণ্ডের তদন্ত ও বিচার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। ইস্তাম্বুলের কৌঁশুলিরা খাশোগিকে হত্যার অভিযোগে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের দুই সাবেক সহযোগী এবং আরও ১৮ জনকে অভিযুক্ত করে।

স্বয়ং যুবরাজ এই হত্যার নির্দেশ দিয়েছিলেন বলেও অভিযোগ করেছেন জামাল খাশোগির বাগদত্তা হাতিস চেঙ্গিস। তিনি বলেন, ‘আশা করি তুরস্কের এই বিচারকাজের মধ্য দিয়ে খাশোগির মরদেহের সন্ধান মিলবে এবং হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে নতুন তথ্য-প্রমাণ বের হবে।’

এর আগে, ইস্তাম্বুলের সৌদি কন্সুলেটের ভেতরে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয় জামাল খাশোগিকে। পরে তার মৃতদেহ টুকরো টুকরো করা হয়। তদন্তকারী কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন, পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ডের পর সৌদি রাজ পরিবারের একটি বিশেষ বিমানে করে খুনিরা তুরস্ক ত্যাগ করে।

জাতিসংঘের বিশেষ দূত এই হত্যাকাণ্ডকে স্পষ্টতই একটি বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড বলে উল্লেখ করেছিলেন।

সারাবাংলা/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন