বিজ্ঞাপন

বিশ্বকাপ ফাইনাল ‘বিক্রি’র প্রমাণ পায়নি শ্রীলঙ্কা পুলিশ

July 3, 2020 | 8:44 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

২০১১ সালের বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচটি ভারতের কাছে ‘'বিক্রি’ করে দেওয়ার প্রমাণ পায়নি শ্রীলঙ্কান পুলিশ। এর মধ্য দিয়ে মাচ পাতানোর তদন্ত শেষ বলেও ঘোষণা দিয়েছে তারা।

বিজ্ঞাপন

ভারতের বিপক্ষে ফাইনাল ম্যাচে একাদশে চার পরিবর্তন এনেছিল শ্রীলঙ্কা। ফাইনালের মতো ম্যাচে এত পরিবর্তন নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। শ্রীলঙ্কা পুলিশ তদন্ত বন্ধের ঘোষণায় জানালো, দলে পরিবর্তনের যৌক্তিক ব্যাখ্যা তারা পেয়েছে।

শুক্রবার সংবাদমাধ্যমকে লঙ্কান পুলিশের এক মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা তাদের ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট। তদন্ত এখন বন্ধ। ফাইনাল ম্যাচের দলে পরিবর্তন আনার যৌক্তিক ব্যাখ্যা তারা দিয়েছে। অবৈধ কাজের কোনো প্রমাণ আমরা পাইনি।’

বিজ্ঞাপন

গত ১৮ জুন ফাইনাল ‘বিক্রি’র অভিযোগ তুলেছিলেন ২০১১ সালে শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা মাহিন্দানন্দা আলুথগামাগে। ‘বিক্রি’ শব্দের মাধ্যমে তিনি ইঙ্গিত করেছিলেন, ভারত বনাম শ্রীলঙ্কার ফাইনাল ম্যাচটি পাতানো ছিল।

এমন গুরুতর অভিযোগের পর বিষয়টি নিয়ে তদন্তের দাবি করেন শ্রীলঙ্কার তৎকালীন দলের গুরুত্বপূর্ণ দুই সদস্য অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা ও মাহেলা জয়াবর্ধনে। একই দাবি তোলেন শ্রীলঙ্কার প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক ও ২০১১ সালে লঙ্কান দলের প্রধান নির্বাচকের দায়িত্ব পালন করা অরবিন্দ ডি সিলভাও।

পরে তদন্ত শুরু করে পর্যাক্রমে ডি সিলভা, ২০১১ বিশ্বকাপ খেলা ব্যাটসম্যান উপল থারাঙ্গা ও কুমার সাঙ্গাকারাকে জিজ্ঞেসাবাদ করে শ্রীলঙ্কা পুলিশ। এরপর মাহেলা জয়াবর্ধনেকে জিজ্ঞাসাবাদ করার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই তদন্ত সমাপ্তির ঘোষণা এলো লঙ্কান পুলিশের পক্ষ থেকে।

সারাবাংলা/এসএইচএস/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন