বিজ্ঞাপন

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত হচ্ছে, ঘোষণা এ সপ্তাহেই

July 6, 2020 | 5:06 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

আগামী অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় বসার কথা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর। তবে বছরের শুরুর দিকে বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের প্রভাবে অনিশ্চিত হয়ে পড়ে বিশ্বকাপের ভাগ্য। অন্যদিকে বিশ্বকাপ আদৌ মাঠে গড়াবে কিনা তা নিয়ে দফায় দফায় বৈঠক করেও কোনো সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি আইসিসি। অবশেষে অস্ট্রেলিয়ার প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম 'দ্য টেলিগ্রাফ' বলছে এ সপ্তাহে আসছে অস্ট্রিয়ায় অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিতের ঘোষণা।

বিজ্ঞাপন

এর আগেই বিশ্বকাপ আয়োজন নিয়ে শঙ্কার কথা জানিয়েছিলেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) সদ্য সাবেক হয়ে যাওয়া প্রধান নির্বাহী কেভিন রবার্টস। এরপর সিএ'র চেয়ারম্যান আর্ল এডিংস বলেন, করোনাভাইরাসের প্রভাবে বৈশ্বিক পরিস্থিতির কারণে যথাসময়ে বিশ্বকাপ আয়োজন 'অবাস্তব'।

এদিকে দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফের রিপোর্টে বলা হয়েছে, শুক্রবার বিশ্বকাপ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য আলোচনায় বসবেন আইসিসি'র শীর্ষ কর্মকর্তারা। বিশ্বকাপ স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও, বিশ্বকাপের পরবর্তী দিনক্ষণ নিয়ে এখনই সিদ্ধান্ত নেওয়া নাও হতে পারে।

বিজ্ঞাপন

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) ২০২১ সালের অক্টোবরে আয়োজন করতে চায় আসরটি। ২০২১ সালে আরেকটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সূচি রয়েছে। যার আয়োজক হিসেবে নাম আছে ভারতের। এর ফলে দুই বছর পিছিয়ে যেতে পারে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত এই বিশ্ব আসরটি।

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এর মধ্যে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজও স্থগিত করেছে দেশটি। বিশ্বকাপ মানেই একত্রে বেশ কয়েকটি দেশের ক্রিকেট উন্মাদনায় মেতে উঠা। অস্ট্রেলিয়ায় এখনই এতো বড় আয়োজন সম্ভব কিনা সন্দেহ এডিংসের, 'আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্বকাপ এখনও বাতিল হয়নি বা পিছিয়ে যায়নি। কিন্তু বর্তমান বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে ১৬টি দলকে অস্ট্রেলিয়ায় নিয়ে আসা (বিশ্বকাপ আয়োজন) অবাস্তব, কিংবা খুব, খুব কঠিন হবে। যেখানে বেশির ভাগ দেশেই কোভিড এখনও বাড়ছে।'

করোনাভাইরাসের বর্তমান পরিস্থিতি ও অস্ট্রেলিয়ার অবস্থা পর্যালোচনা করে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভাগ্য নির্ধারণ হতে পারে। এদিকে, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই বলে রেখেছে বিশ্বকাপ যথা সময়ে না হলে সেই সময়টাতে আইপিএল আয়োজন করতে চায় তারা। করোনার মধ্যে আইপিএলও সম্ভব কিনা সেটাও বড় প্রশ্ন।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন