বিজ্ঞাপন

পশুর হাট যেন করোনার হটস্পট না হয়: সুজন

July 12, 2020 | 9:29 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতিতে ঈদুল আজহায় পশু কোরবানির নামে বিত্তবৈভবের প্রতিযোগিতা না করার আহ্বান জানিয়েছেন নাগরিক উদ্যোগের প্রধান উপদেষ্টা চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন। পশুর হাটকে করোনার হটস্পট না বানানোর আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

রোববার (১২ জুলাই) বিকেলে ভার্চুয়াল প্রেস ব্রিফিংয়ে খোরশেদ আলম সুজন এসব কথা বলেন। এসময় তিনি সুনির্দিষ্ট ২০ দফা প্রস্তাবনাও তুলে ধরেন।

সুজন বলেন, ‘করোনার সংক্রমণ নিয়ে বিদ্যমান পরিস্থিতিতে ঈদুল আজহার কিছু আয়োজনকে কোরবানি দিতে হবে। সামাজিক চাকচিক্য ও বিত্তবৈভবের প্রতিযোগিতা থেকে বিরত থাকতে হবে। কোরবানি পালন ওয়াজিব, আর জীবন রক্ষা ফরজ। সুতরাং জীবন রক্ষাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে।’

বিজ্ঞাপন

‘চার মাস গণছুটি ও লকডাউনের কারণে বিভিন্ন কলকারখানা, বেসরকারি, স্বায়ত্বশাসিত, আধা স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান বন্ধ অবস্থায় আছে। দেশের ব্যবসা-বাণিজ্যে বৈশ্বিক মন্দাভাবের প্রভাব পড়েছে। সবাইকে প্রাত্যহিক জীবনযাপনে মিতব্যয়ী হতে হবে। একইভাবে কোরবানিও ঈদও পালন করতে হবে মিতব্যয়িতার সঙ্গে।’

চট্টগ্রাম নগরীর ভেতরে বড় কোনো পশুর হাট না বসানো, উপজেলাভিত্তিক ছোট পশুর হাট বসানো, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রেতা-বিক্রেতার সমাগম ঘটানোসহ ২০ দফা প্রস্তাবনা দিয়েছেন সুজন। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে সংক্রমণ এখন কিছুটা কমতির দিকে। এই ধারা অব্যাহত রাখতে হলে আমাদের দায়িত্বশীল আচরণ করতে হবে। আমরা কোনোভাবেই আগের অবস্থায় ফিরে যেতে পারি না। ঈদুল আজহায় এবার কিছু আয়োজন কোরবানি দিতে পারলে আগামী বছর আমরা নিশ্চয় উৎসবমুখর পরিবেশে ঈদ উদযাপন করতে পারব। সেজন্য আমাদের এবারের পশুর হাটগুলো যেন করোনার হটস্পট না হয়, সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।’

সারাবাংলা/আরডি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন