বিজ্ঞাপন

শেবাচিম করোনা ইউনিটে ১০ ঘণ্টার ব্যবধানে ৫ জনের মৃত্যু

July 13, 2020 | 1:54 am

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

বরিশাল: বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালের করেনা ইউনিটে মাত্র ১০ ঘণ্টার ব্যবধানে এক নবজাতকসহ পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে নবজাতকসহ দু’জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে এবং বাকি তিন জন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। পরের তিন জনের শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে শেবাচিম আরটি-পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

শেবাচিম হাসপাতালের তথ্য অনুযায়ী, বরিশাল নগরীর মাত্র ১৭ দিন বয়সী নবজাতক শিরিন আক্তারকে গত ৬ জুলাই রাতে হাসপাতালে ভর্তি হয়। নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ আসে শিশুটি। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার সকাল ১০টার দিকে শিরিনের মৃত্যু হয়। অন্যদিকে, গত ২৮ জুন ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলা লুৎফর রহমান (৬০) ভর্তি হয়েছিলেন করোনা ইউনিটে। তার শরীরেও করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার মৃত্যু হয় তার।

এদিকে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার (১১ জুলাই) দিবাগত রাত ১টার দিকে মারা যান বৃদ্ধ লুৎফর রহমান। আর ঝালকাঠীর রাজাপুর উপজেলার বৃদ্ধা সুফিয়া বেগম ও গৌরনদী উপজেলার বৃদ্ধ কদম আলীর মৃত্যু হয় রোববার সকালে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন