বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশকে বিশ্বকাপের মঞ্চে দেখতে চান মারিয়া

July 13, 2020 | 10:37 pm

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: মহামারি করোনাভাইরাসে স্থবির হয়ে গেছে ফুটবল। কোলাহল ফুটবলে নিরবতার কুণ্ডলী বিরাজ করছে। সাত বছর পর নারী লিগ মাঠে ফিরেছিল সেটাও ভেস্তে গিয়েছে এই করোনার কবলে পরে। এখন সব নারী ফুটবলার এখন কোয়ারেন্টাইনে যে যার বাসায়। তবে এই করোনার মধ্যেও থেমে নেই সাবিনা-কৃষ্ণা মারিয়া মান্ডাদের কাজ। বাসায় সহযোগিতার পাশাপাশি ফিটনেস ঠিক রাখতে কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন সবাই।

বিজ্ঞাপন

বিশেষ করে জাতীয় নারী ফুটবল দলের ফুটবলার আছেন নিরবিচ্ছিন্ন তদারকিতে। কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটনসহ কোচিং স্টাফদের নির্দেশনা মেনে মারিয়ারা প্রতিদিন অনুশীলনে ঘাম ঝড়িয়ে যাচ্ছেন।

অ: ১৬ জাতীয় বয়সভিত্তিক দলের অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা তাদের একজন। তিনিও ঘরেই ব্যায়াম করে যাচ্ছেন। অনুশীলন করছেন। ফিটনেসের ঘাটতি পূরণ করছেন। তবে ব্যক্তিগতভাবে মাঠটাকে মিস করছেন ভীষণ। মিস করছেন অধিনায়কত্বকের আর্মব্যান্ডকেও।

বিজ্ঞাপন

কোয়ারেন্টাইনে কেমন কাটাচ্ছেন সময় জানালেন মারিয়া, ‘বাসায় থাকছি, মাকে সাহায্য করছি। নিয়মিত অনুশীলন করি, এছাড়া গান ও শোনা হয়।’

মাঠে যাওয়ার নিষেধাজ্ঞার মধ্যেও থেমে নেই মারিয়ার অনুশীলন, ‘আমাদেরকে দেওয়া শিডিউল অনুযায়ী অনুশীলন করছি। মাঠে যেতে নিষেধ করা হয়েছে তাই ঘরেই ব্যায়াম করছি, একবার মাঠে অনুশীলন করছি।’

স্থগিত হওয়া নারী ফুটবল লিগটা করোনার কারণে চার মাস থেকে বন্ধ। ফের চালুসহ লিগ নিয়মিত হলে ফুটবলারদের আর্থিক স্বচ্ছলতার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে বলে জানান মারিয়া, ‘এই লিগ টি নিয়মিত আয়োজন করা হলে আমাদের জন্য উপকার হবে কারণ তাহলে আমরা পরিবারে অর্থনৈতিক ভাবে সাহায্য করতে পারবো।’

বয়সভিত্তিক দলের পাশাপাশি জাতীয় দল নিয়ে আশার বাণী শোনালেন মারিয়া। স্বপ্ন দেখেন একদিন বিশ্বকাপ খেলবে বাংলাদেশ, ‘আরো ভালো খেলে একদিন ওয়ার্লড কাপ খেলবো।’

তবে আপাতত মাঠটাকে মিস করছেন। মিস করেন অধিনায়কত্বকে, ‘আমি মনে করি এটি আমার জন্য সৌভাগ্যের বিষয়। এই দায়িত্বের কারনে আরো ভালো খেলতে ইচ্ছে হয়।’

সারাবাংলা/জেএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন