বিজ্ঞাপন

নেত্রকোনায় আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু সম্পত্তি দখলের অভিযোগ

July 14, 2020 | 5:56 pm

লোকাল করেসপন্ডেন্ট

নেত্রকোনা: নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার ১০ নম্বর নারান্দিয়া ইউনিয়নের শাহবাজপুর গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মজিদ খানের বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ি ও জমি দখল নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে প্রতিকার চেয়ে সোমবার (১৩ জুলাই) জেলা প্রশাসক বরাবর গণস্বাক্ষরসহ অভিযোগপত্র জমা দিয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।

বিজ্ঞাপন

অভিযোগপত্রে জানা যায়, সরকারি দলের প্রভাব খাটিয়ে শাহবাজপুর গ্রামের মৃত কাশিনাথ পন্ডিতের দুই কন্যা অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক কাননবালা দেবী ও বাসনা দেবীর বসতভিটা এবং এক একর কৃষি জমি সন্ত্রাসী কায়দায় দখল করে নেয় আব্দুল মজিদ খান।

এছাড়া একই এলাকার সুভাষ চন্দ্রের স্ত্রী চিন্তা রানীর সোয়া তিন শতক জমি ও  মৃত নরেন্দ্র মাস্টারের ১৮ শতক বসতবাড়িও দখল করার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। মৃত নরেন্দ্র মাস্টারের পরিবার ভিটেমাটি হারিয়ে এখন নেত্রকোনা জেলা শহরে ভাড়া বাসায় দিন কাটাচ্ছেন।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার ভুক্তভোগী স্কুল শিক্ষিকা কাননবালা দেবী তার পৈত্রিক সম্পত্তি উদ্ধার করে দিতে গ্রামবাসীর শরণাপন্ন হলে শত শত মানুষ তাদের প্রিয় শিক্ষকের পাশে এসে দাঁড়ান। তারা আব্দুল মজিদকে ভূমিদস্যু হিসেবে আখ্যায়িত করেন এবং অবিলম্বে তার বিচার করতে প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।

এসময় কাননবালা'র প্রতি সহমর্মিতা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন উক্ত ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আজহারুল ইসলাম খান, স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি নওয়াব আলী প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

অভিযোগের ব্যাপারে আব্দুল মজিদ খান জানান, এই সম্পত্তিগুলো তিনি কিনেছেন। কিন্তু জমির কাগজ ও দলিল দেখাতে ব্যর্থ হন তিনি।

সারাবাংলা/টিসি

বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন