বিজ্ঞাপন

পুষ্টিতে ভরা সজনে পাতার ৩ পদ, এক পদ সজনের

July 18, 2020 | 3:41 pm

ফারজানা আফরোজ ডলি

মহামারির এই সময়টা কিছুটা কষ্টকর, কি খেলে ভালো থাকবো বোঝা মুশকিল। তবে যেসব খাবার অনেক পুষ্টিগুণসম্পন্ন খুঁজে খুঁজে তাই খাওয়ার চেষ্টা করা উচিৎ। এমনই একটি দেশি সবজি সজনে। এর পাতা, ডাঁটা, বাকল, শেকড় সবই ঔষধি গুণসম্পন্ন। সজনে পাতার গুণাগুণ সম্পর্কে বিজ্ঞানীরা মনে করেন, এটি পুষ্টিগুণের আঁধার। নিরামিষভোজীরা সজনেপাতা থেকে সবচেয়ে বেশি উপকৃত হতে পারেন। পরিমাণের ভিত্তিতে তুলনা করলে একই ওজনের সজনে পাতায় কমলালেবুর থেকে ৭ গুণ বেশি ভিটামিন সি, দুধের ৪ গুণ ক্যালসিয়াম এবং দুই গুণ আমিষ, গাজরের ৪ গুণ ভিটামিন এ ও কলার থেকে ৩ গুণ বেশি পটাশিয়াম থাকে। বিজ্ঞানীরা আরও বলেন, সজনে পাতায় ৪২ শতাংশ আমিষ, ১২৫ শতাংশ ক্যালসিয়াম, ৬১ শতাংশ ম্যাগনোসিয়াম, ৪১ শতাংশ পটাশিয়াম, ৭১ শতাংশ লৌহ, ২৭২ শতাংশ ভিটামিন এ এবং ২২ শতাংশ ভিটামিন সি ও দেহের আবশ্যকীয় বহু পুষ্টি উপাদান থাকে।

বিজ্ঞাপন

এক টেবিল চামচ শুকনা সজনে পাতার গুঁড়ায় এক থেকে  দুই বছর বয়সী শিশুদের অত্যবশ্যকীয় ১৪ শতাংশ আমিষ, ৪০ শতাংশ ক্যালসিয়াম ও ২৩ শতাংশ লোহা ও ভিটামিন এ সরবরাহ হয়ে থাকে। দৈনিক ৬ চামচ সজনে পাতার গুঁড়া গর্ভবতী ও স্তন্যদায়ী মায়ের চাহিদার সবটুকু ক্যালসিয়াম ও আয়রন সরবরাহ করতে সক্ষম। আজ আসুন দেখে নেই দারুণ পুষ্টিগুণে ভরা সজনে পাতার তিন পদ আর সজনে ডাঁটার একটি।

সজনে পাতার মাখামাখি

বিজ্ঞাপন

পুষ্টিতে ভরা সজনে পাতার ৩ পদ, এক পদ সজনের

উপকরণ

বিজ্ঞাপন

সজনে পাতা ২ কাপ
খাবার সোডা ১/২ চা চাপচ
পেঁয়াজ কুচি ১ টেবিল চামচ
মরিচ কুচি ১ চা চামচ
লেবুর রস ১ ১/২ (দেড়) চা চামচ
লবণ আন্দাজমতো

পদ্ধতি

বিজ্ঞাপন

প্রথমে চুলায় গরম পানিতে খাবার সোডায় সজনে পাতা সেদ্ধ করে নেব। সেদ্ধ হয়ে গেলে ছেঁকে সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে নিতে হবে। এর সঙ্গে কেউ চাইলে নিজের স্বাদমতো শুকনা মরিচ,কাসুন্দি বা সরিষা বাটাও ব্যাবহার করতে পারেন।

সজনে পাতার পাকোড়া

বিজ্ঞাপন

 পুষ্টিতে ভরা সজনে পাতার ৩ পদ, এক পদ সজনের

উপকরণ

সজনে পাতা ১ কাপ
পেঁয়াজ কুচি দেশি পেঁয়াজ দুটো বড়
কাঁচা মরিচ কুঁচি ৫/৬ টি
টালা জিরা গুঁড়া ১/২ চা চামচ
বেসন ১/২ কাপ
বেকিং পাউডার ১/২ চা চামচ
লবণ ও মরিচ গুঁড়া নিজস্ব স্বাদমত
ভাঁজার জন্য তেল

পদ্ধতি

সজনে পাতা বেছে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। এবার পাতার সঙ্গে পেঁয়াজ, কাঁচামরিচ, বেসন, টালা জিরা গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া, লবণ, বেকিং পাউডার ও সামান্য পানি দিয়ে ভালো করে হাতে মেখে নেবো। মাখাটা খুব নরম হলে হবে না। যদি পানি বেশি হয় তাহলে কিছুটা চালের গুঁড়া বা বেসন মিশিয়ে নিন। তারপর পাকোড়া আকারে ডুবো তেলে ভেজে নেবো। সোনালী রঙ হলে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন মজার সজনে পাতার পাকোড়া।

সজনে পাতার বড়া

পুষ্টিতে ভরা সজনে পাতার ৩ পদ, এক পদ সজনের

উপকরণ

সজনে পাতা বাটা ২ কাপ
মুশুরির ডাল বাটা ১ কাপ
পেয়াজ কুচি ১/২ কাপ
হলুদ, মরিচ, জিরা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ
লবণ ও কাঁচামরিচ নিজস্ব স্বাদমতো
ভাজার জন্য তেল

পদ্ধতি

সব উপকরণ একসাথে মেখে ছোট ছোট গোল করে ভাগ করে নিন। তারপর চ্যাপ্টা বড়ার আকার দিন। এবার ফ্রাইং প্যানে বা তাওয়ায় অল্প তেল দিয়ে ব্রাশ দিয়ে মুছে নিন। এবার বড়াগুলো এ পিঠ ও পিঠ করে ভেজে নিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

সজনে ডাঁটা কষা

পুষ্টিতে ভরা সজনে পাতার ৩ পদ, এক পদ সজনের

উপরকরণ

সজনে ডাঁটা ১০ টি
পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ
রসুনবাটা ১ টেবিল চামচ
জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ
হলুদ গুঁড়া ১/২ চা চামচ
সরিষাবাটা ১ চা চামচ
লবণ ও তেল আন্দাজমত
কাঁচা মরিচ ৪/৫ টি

পদ্ধতি

সজনে ডাঁটা বেছে টুকরো টুকরো করে নেবো। এবার কড়াইয়ে প্রথমে সরিষার তেল দিয়ে কিছুটা গরম হলে তাতে একে একে পেঁয়াজ-রসুন বাটা, হলুদ, মরিচ, অল্প জিরাবাটা ও সরিষাবাটা দিয়ে কষিয়ে নেবো।

মশলা কষানো হলে এতে সজনে ডাঁটাগুলো দিয়ে সামান্য পানি দিয়ে ভালো করে নেড়েচেড়ে নিতে হবে। কষাই হয়ে গেলে এক কাপের মতো পানি দিয়ে ঢেকে দেবো। ভালোভাবে সিদ্ধ হয়ে কষা কষা হলে কাঁচামরিচ ফালি দিয়ে নামিয়ে নেবো

সারাবাংলা/আরএফ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন