Sarabangla 4th-anniversary Sarabangla 4th-anniversary
বিজ্ঞাপন

মৃতের হাত বেঁধে টাকা আদায়, পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ হাইকোর্টের

July 20, 2020 | 11:02 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: রাজধানীর মালিবাগের প্রশান্তি হাসপাতালে মৃতের হাত বেঁধে টাকা আদায়ের ঘটনা তদন্ত করতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আর ৩০ দিনের মধ্যে এ তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি এ ঘটনায় দায়ের করা অভিযোগ এজাহার হিসেবে নিতে শাহজাহানপুর থানাকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (২০ জুলাই) বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের হাইকোর্ট বেঞ্চ মৃতের হাত বেঁধে টাকা আদায় সংক্রান্ত আবেদনের শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী জহির উদ্দিন লিমন, রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়।

আইনজীবী জহির উদ্দিন লিমন আদেশের বিষয়টি জানিয়ে বলেন, ‘এছাড়াও রোগীর মৃত্যুর ঘটনা তদন্ত করতে স্বাস্থ্য অধিদফতরকেও নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।’

বিজ্ঞাপন

এর আগে গত ৭ জুলাই বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়। সেইসঙ্গে মৃত ব্যক্তির পরিবারের জন্য এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চাওয়া হয়।

এ ঘটনায় পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন তুলে ধরে আইনজীবী জানান, মালিবাগের প্রশান্তি হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছিলেন নোয়াখালীর সুবর্ণচরের সাগরিকা সমাজ উন্নয়ন সংস্থার মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন কর্মকর্তা ডা. মহিন উদ্দীন পারভেজ। রোগীর স্বজনদের অভিযোগ, অনেকটা সুস্থ থাকার পরও ১৪ জুন ভর্তি হওয়ার পরই তাকে প্রায় জোর করেই আইসিইউতে পাঠিয়ে দেন আইসিইউ কনসালটেন্ট ডা. এস এম আলীম। ১৮ জুন ভোরে মারা যান মহিন উদ্দীন পারভেজ। এরপর তার স্বজনদের কাছে ১ লাখ ৫৬ হাজার টাকার বিল ধরিয়ে দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

আইনজীবী লিমন আরও জানান, এত টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় রোগীর স্বজন রুবেলের মোবাইল কেড়ে নেন ডা. আলীমের ম্যানেজার সাইফুল। তাকে এক রুমে আটকে রাখা হয়। বলা হয়, টাকা না দিলে তাকে র‌্যাবে দেওয়া হবে। তার ভাইয়ের লাশ আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলামে ‘বেওয়ারিশ’ হিসেবে দিয়ে দেওয়া হবে। পরে রুবেল তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করে ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা হাসপাতাল খরচ ও প্রায় ৬০ হাজার টাকা ওষুধের দাম দিয়ে মৃতদেহ নিয়ে ওইদিন সন্ধ্যায় ছাড়া পান।

আইনজীবী বলেন, ‘এভাবে রোগী আটকিয়ে টাকা আদায় একধরনের ফৌজদারি অপরাধের সামিল।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এজেডকে/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন