বিজ্ঞাপন

দক্ষিণ এশিয়ায় ত্রিমুখী মানবিক বিপর্যয়: আইএফআরসি

July 22, 2020 | 3:03 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

কোভিড-১৯ বৈশ্বিক মহামারি, অর্থনৈতিক টানাপোড়েন ও মৌসুমী বন্যার কারণে দক্ষিণ এশিয়ায় ত্রিমুখী মানবিক বিপর্যয় সৃষ্টি হয়েছে। এর ভুক্তভোগী হয়েছেন বাংলাদেশ, ভারত ও নেপালের ৯৬ লাখ মানুষ।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (২২ জুলাই) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব রেডক্রস-রেডক্রিসেন্ট সোসাইটিজ (আইএফআরসি) এ কথা জানিয়েছে।

এ ব্যাপারে আইএফআরসি'র মহাসচিব জাগান চাপাগাইন বলেন, বাংলাদেশ-ভারত-নেপালজুড়ে লাখো মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। বন্যায় তাদের বসতবাড়ি ও ফসল ধ্বংস হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, প্রতিবছর মৌসুমী বন্যা হলেও এবারের প্রেক্ষাপট ভিন্ন। বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া ভয়াবহ প্রাণঘাতী কোভিড-১৯ মহামারি'র মধ্যে মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হিসেবে বন্যা দেখা দিয়েছে। বন্যার কারণে এর মধ্যেই দক্ষিণ এশিয়ায় ৫৫০ জনের প্রাণহানির পাশাপাশি ৯৬ লাখের বেশি মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

সরকারি হিসাবে বাংলাদেশে ২৮ লাখ ও ভারতে ৬৮ লাখ মানুষ পানিবন্দি রয়েছেন। আর নেপালে বন্যার মধ্যে ভূমিধসে ১১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিবৃতিতে আইএফআরসি মহাসচিব বলেন, বাংলাদেশ-ভারত-নেপালের মানুষ বন্যা-করোনাভাইরাসসহ তাদের সহগামী জীবনযাপন ও চাকরি হারানোর কারণে আর্থসামাজিক সংকটের ত্রিমুখী চাপে পিষ্ট। কৃষিজমি প্লাবিত হয়ে ফসলের ক্ষতি ও কোভিড-১৯ মহামারিতে মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত লাখ লাখ মানুষকে চরম দারিদ্র্যের মধ্যে ঠেলে দেবে।

পাশাপাশি, আইএফআরসি বন্যার্তদের জন্য ত্রাণ কার্যক্রম ও উদ্ধার তৎপরতায় গত মাসে ২ লাখ ৩০ হাজারের বেশি সুইস ফ্রাঁসহ বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্টকে মোট ৮ লাখ সুইস ফ্রাঁ (৮ লাখ ৫০ হাজার ডলার) দিয়েছে বলে ওই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন