বিজ্ঞাপন

পোষা কুকুরের বয়স বাড়লে যেভাবে যত্ন নেবেন

July 25, 2020 | 12:30 pm

লাইফস্টাইল ডেস্ক

তরুণ কুকুরের চেয়ে প্রবীণ কুকুরের স্বাস্থ্যগত চাহিদা ভিন্ন থাকে। তাই আপনার কুকুরের যদি বয়স বেড়ে যায় তাহলে তার যত্ন বাড়াতে হবে। প্রয়োজন আগের চেয়ে বেশি সময় ও মনোযোগ। আপনার প্রিয় প্রবীণ পোষা কুকুরের স্বাস্থ্য ভালো রাখা নিয়ে রইল কয়েকটি টিপস।

বিজ্ঞাপন

১. নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করান
এতদিন যেমনতেমন, বয়স বেড়ে গেলে আপনার কুকুরকে নিয়মিত পশু চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান। বছরে অন্তত দু’বার পরিপূর্ণ স্বাস্থ্য পরীক্ষা তো করাবেনই, গুরুতর স্বাস্থ্য সমস্যা থাকলে আরও কয়েকবার যাবেন। স্বাস্থ্য পরীক্ষায় কুকুরের দাঁত, হৃতপিন্ড, কিডনির পাশাপাশি বাত আছে কিনা তাও পরীক্ষা করা হয়। নিয়মিত পরীক্ষার মধ্যে থাকলে আপনার কুকুরের জীবন স্বচ্ছন্দে কাটবে।

২. আপনার কুকুরের যে কোনও আচরণগত পরিবর্তন খেয়াল করুন
আপনার বয়স্ক কুকুরের আচরণগত পরিবর্তন সাবধানতার সাথে পর্যবেক্ষণ করুন। অন্যান্য পোষা প্রাণীর জন্যও এটি গুরুত্বপূর্ণ। তবে প্রবীণ কুকুরের ক্ষেত্রে খেয়াল রাখা দ্বিগুণ হতে হবে। আপনার কুকুরের আচরণ পরিবর্তন রোগের লক্ষণ হতে পারে। বিশেষ করে ক্ষুধা লাগা এবং জল গ্রহণের পরিবর্তন হয়েছে কিনা তা বিশেষভাবে খেয়াল রাখুন। প্রস্রাব-পায়খানার অভ্যাস এবং ঘুমের রুটিনে পরিবর্তন হয়েছে কিনা দেখুন। যদি আপনার কুকুরটি হঠাৎ অকারণে বিরক্ত হয়ে যায় তবে তা হতে পারে ব্যথাবোধ, দেখা ও শোনার অসুবিধার লক্ষণ। আপনার প্রবীণ পোষ্যের রুটিন বা আচরণে যে কোনও পরিবর্তন দেখলে পশু চিকিত্সকের সঙ্গে পরামর্শ করুন ও সেই অনুযায়ী চিকিৎসা শুরু করুন।

বিজ্ঞাপন

৩. কুকুরের চলাফেরা সহজ করুন
আপনার বয়স্ক কুকুরের বাত বা অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যার কারণে ব্যথা হতে পারে যা তার চলাচলে সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। এই বিষয়ে সচেতন থাকুন ও তার চলাচলের উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টি করুন। বিছানায় ওঠা বা সিঁড়ি ভাঙা তার জন্য কষ্টকর হতে পারে। সেক্ষেত্রে তার কাছে আপনি নিজেই যান। পিচ্ছিল মেঝেতে চলতে সমস্যা হতে পারে। তাই পাপোষ বা কার্পেটের ব্যবস্থা করুন। বয়স্ক ব্যক্তিকে যেমন ধরে ওঠানামা করানো লাগে, তেমন সাহায্য প্রয়োজন হতে পারে আপনার প্রিয় কুকুরেরও।

৪. বয়স-উপযোগী খাদ্যাভ্যাস নিশ্চিত করুন
বয়স বাড়লে বদলে ফেলুন আপনার প্রিয় কুকুরের খাদ্যাভ্যাস। বয়স অনুযায়ী পেট ফুড কিনুন। বাড়িতে তৈরি খাবার দিলে পশু চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে নিন। অনেকসময় বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কুকুরের ওজন বেড়ে যেতে পারে। কোন কোন কুকুর আবার কম সক্রিয় থাহার ফলেও ওজন বেড়ে যায়। এসব ক্ষেত্রে তার খাবারের দিকে বাড়তি খেয়াল রাখুন। উচ্চ ক্যালরিযুক্ত খাবার দিন যেগুলোতে ওজন বাড়বে না। আবার কিছু নির্দিষ্ট রোগের জন্যও আলাদা খাদ্যাভ্যাসের প্রয়োজন হতে পারে।

৫. বদলে ফেলুন বিছানা
আপনার প্রবীণ কুকুরের জন্য নরম বিছানার ব্যবস্থা করুন। ওর আরামের জন্য নরম কম্বল এবং তোয়ালেও ব্যবহার করুন। এটি তাকে ভালোভাবে বিশ্রাম নিতে এবং আরও ভালো ঘুমাতে সাহায্য করবে। এমনকি প্রবীণ কুকুরদের জন্য বিশেষভাবে তৈরি অর্থোপেডিক বিছানাও পাওয়া যায়। আপনার বয়স্ক কুকুরের অস্থিসংযোগগুলোতে বার্ধক্যজনিত ব্যাথা থাকলে তার জন্য আলাদা কুশন ব্যবহারে উপকার পাওয়া যাবে।

সারাবাংলা/আরএফ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন