বিজ্ঞাপন

মাস্ক কেলেঙ্কারি: ঢাবির সহকারী রেজিস্ট্রারকে সাময়িক বহিষ্কার

July 26, 2020 | 9:38 pm

ঢাবি করেসপন্ডেন্ট

মাস্ক কেলেঙ্কারিতে জড়িত অভিযোগে গ্রেফতার হয়ে রিমান্ডে থাকা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) রেজিস্ট্রার শারমিন জাহানকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। পাশাপাশি তাকে সাত কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

রোববার (২৬ জুলাই) ঢাবি জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানায় কর্তৃপক্ষ। শারমিন অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনাল নামে একটি কোম্পানির মালিক। এই কোম্পানি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) নকল এন৯৫ মাস্ক সরাবরাহ করেছিল।

আরও পড়ুন- নিম্নমানের মাস্ক সরবরাহ, অপরাজিতার মালিক শারমিন গ্রেফতার

বিজ্ঞাপন

গণমাধ্যমে পাঠানো ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী রেজিস্ট্রার শারমিন জাহান শিক্ষা ছুটিতে থাকা অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমতি ছাড়াই ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। তার এই কর্মকাণ্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি-বিধান ও চাকরি বিধিমালার শৃঙ্খলা পরিপন্থী। তার ওপর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে নকল এন৯৫ মাস্ক সরবরাহের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা হওয়ায় ও পুলিশ রিমান্ডে থাকায় তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের মর্যাদা ও ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করেছেন।

আরও পড়ুন- নিম্নমানের মাস্ক সরবরাহ, অপরাজিতার মালিক শারমিন রিমান্ডে

ঢাবি সহকারী রেজিস্ট্রারের দায়িত্বে থাকা শারমিন জাহান ২০১৬ থেকে শিক্ষা ছুটিতে আছেন। তার শিক্ষা ছুটির মেয়াদ এখনো শেষ হয়নি। এর মধ্যে চীনে থাকা অবস্থায় ২০১৯ সালের মার্চে অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনাল নামে একটি কোম্পানি খুলে তিনি ব্যবসা শুরু করেন। গত  ২৭ জুন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে ১১ হাজার মাস্ক সরবরাহের কার্যাদেশ পায় শারমিনের মালিকানাধীন অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনাল। পরে নকল এন-৯৫ মাস্ক সরবরাহের অভিযোগে শুক্রবার রাতে শাহবাগ এলাকা থেকে শারমিনকে গ্রেফতার করে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এর আগে বৃহস্পতিবার তার বিরুদ্ধে মামলা করে বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ।  এই মামলায় বর্তমানে রিমান্ডে আছেন শারমিন জাহান।

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন