বিজ্ঞাপন

বাড়ছে সুশান্তের মৃত্যুরহস্য, আটকে দেওয়া হল তদন্ত কর্মকর্তাকে

August 3, 2020 | 9:55 pm

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

একের পর এক ঘটনায় আরও রহস্যজনক হয়ে উঠছে সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার তদন্ত। এবার বিহার পুলিশের তদন্তকারী আইপিএস অফিসার বিনয় তিওয়ারিকে জোর করে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর অভিযোগ উঠল। আর এ কাজটি করেছেন বৃহন্মুম্বাই পৌরসভা।

বিজ্ঞাপন

বিষয়টি জানিয়েছেন বিহার পুলিশের ডিজি গুপ্তেশ্বর পাণ্ডে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেয়া একটি পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘আইপিএস অফিসার বিনয় তিওয়ারি পাটনা থেকে মুম্বাই পৌঁছান রবিবার। যে দলটি মুম্বাইয়ে তদন্ত করছে তার নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য তিনি গিয়েছিলেন। কিন্তু রাত ১১টা নাগাদ তাকে জোর করে কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়ে দেন বৃহন্মুম্বাই পৌরসভার উর্ধতন কর্মকর্তারা। অনেক অনুরোধের পরেও তাকে আইপিএস মেসে থাকার অনুমতি দেওয়া হয়নি। ফলে গোরেগাঁওতে একটি গেস্ট হাউসে থাকতে হচ্ছে তদন্ত কর্মকর্তা বিনয় তিওয়ারিকে।’

বাড়ছে সুশান্তের মৃত্যুরহস্য, আটকে দেওয়া হল তদন্ত কর্মকর্তাকে

গত ১৪ জুন মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় নিজের ফ্ল্যাট থেকে ঝুলন্ত দেহ মিলেছিল অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের। এরপর অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করে তদন্তে নামে মুম্বাই পুলিশ। গত দেড় মাস ধরে তদন্ত চলাকালীন সময়ে একে একে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় পরিচালক করণ জোহর, সঞ্জয় লীলা বানশালী, মহেশ ভাট-সহ অন্তত ৪০ জনকে। এদিকে গত ২৫ জুলাই পাটনার একটি থানায় সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী এব‌ং আরও ছ’জনের বিরুদ্ধে সুশান্তকে আত্মহত্যায় মদত দেওয়ার অভিযোগ এনে এফআইআর করেন সুশান্তের বাবা কে কে সিংহ। সেই অভিযোগের পরে মুম্বই এসে তদন্ত শুরু করে বিহার পুলিশের একটি দল। কিন্তু সেই দলে যোগ দেওয়া আইপিএস অফিসারকেই পরিকল্পনামাফিক কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর অভিযোগ উঠল পৌরসভার উর্ধতন কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এএসজি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন