বিজ্ঞাপন

মার্কিন নিষেধাজ্ঞার মুখে ক্যারি লামসহ ১১ কর্মকর্তা

August 8, 2020 | 1:24 am

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী ক্যারি লামসহ চীনপন্থি ১১ কর্মকর্তার ব্যাপারে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। খবর ব্লুমবার্গ।

বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি বিভাগ জানিয়েছে, হংকংয়ের স্বাধীনতায় অযাচিত হস্তক্ষেপের অভিযোগে ওই কর্মকর্তাদের ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে দেশটি।

এ ব্যাপারে এক বিবৃতিতে অর্থমন্ত্রী স্টিভেন মু'চেন ব্লুমবার্গকে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র হংকংয়ের অধিবাসীদের স্বায়ত্তশাসনের অধিকার রক্ষায় তাদের সর্বশক্তি নিযুক্ত করবে।

পাশাপাশি, প্রেসিডেন্টের নির্বাহী আদেশের মাধ্যমে নিষেধাজ্ঞাপ্রাপ্ত ১১ কর্মকর্তার যুক্তরাষ্ট্রে থাকা স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হবে বলে ট্রেজারি বিভাগের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এদিকে, ক্যারি লাম ছাড়াও ওই নিষেধাজ্ঞার তালিকায় রয়েছেন চীনের হংকং-ম্যাকাও লিয়াজো দফতরের পরিচালক সিয়া বাওলং, হংকংয়ের পুলিশ কমিশনার ক্রিস ট্যাং।

এর আগে, হংকংয়ে চীনের আরোপ করা জাতীয় নিরাপত্তা আইনের ইস্যুতে বেইজিংপন্থি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাছাড়া, উইঘুর মুসলিমসহ ক্ষুদ্র নৃ-তাত্ত্বিক জাতিগোষ্ঠীর ওপর দমন-পীড়ন চালানোর অভিযোগে বিভিন্ন সময় চীনের কমিউনিস্ট পার্টির শীর্ষ নেতৃত্বের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তারই ধারাবাহিকতায় হংকংয়ের বেইজিংপন্থি কর্মকর্তাদের ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল দেশটি।

এরই মধ্যে, জাতীয় নিরাপত্তা আইনের দোহাই দিয়ে গণতন্ত্রপন্থি ১২ প্রার্থীকে হংকংয়ের আইন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিতে দেয়নি ক্যারি লামের প্রশাসন। এর বাইরে, সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের সূত্রধরে চারজনকে গ্রেফতারের ঘটনাও ঘটেছে।

বিজ্ঞাপন

প্রসঙ্গত, হংকং ইস্যুতে ট্রাম্প প্রশাসনের এই পদক্ষেপ নভেম্বরে অনুষ্ঠেয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোট বাড়ানোর জাতিবাদী কৌশল কি না - সে ব্যাপারেও বিশ্লেষকরা প্রশ্ন তুলেছেন।

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন