বিজ্ঞাপন

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৪ জনের, শনাক্ত ২৭৬৬

August 14, 2020 | 4:35 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৪ জন মারা গেছেন। একই সময়ে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হিসবে শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ৭৬৬ জন। আর নতুন সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৭৫২ জন।

বিজ্ঞাপন

এর ফলে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মোট মারা গেছেন ৩৫৯১ জন, মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল দুই লাখ ৭১ হাজার ৮৮১ জনে। আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠলেন ১ লাখ ৫৬ হাজার ৬২৩ জন।

শুক্রবার (১৪ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদফতরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। দেশে সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস পরিস্থিতি তুলে ধরা হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ৮৭টি ল্যাবরেটরিতে করোনা পরীক্ষার জন্য ১৩ হাজার ৭৫৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ৮৫৬টি। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট ১৩ লাখ ২৮ হাজার ৭৫৭টি নমুনা পরীক্ষা হলো।

বিজ্ঞাপন

গত ২৪ ঘণ্টায় যেসব নমুনা পরীক্ষা হয়েছে, তার মধ্যে ২ হাজার ৭৬৬ জনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট ২ লাখ ৭১ হাজার ৮৮১ জনের শরীরে শনাক্ত হলো করোনার উপস্থিতি। ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ২১ দশমিক ৫২ শতাংশ, এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৪৬ শতাংশ।

করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হওয়া ১ হাজার ৭৫২ জনসহ এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হলেন ১ লাখ ৫৬ হাজার ৬২৩ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৭ দশমিক ৬১ শতাংশ। অন্যদিকে ২৪ ঘণ্টায় নতুন ৩৪ জনসহ মোট মারা গেছেন ৩ হাজার ৫৯১ জন। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩২ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত পুরুষ মারা গেছেন ২৮ জন, নারী ছয় জন। এ নিয়ে এ পর্যন্ত মোট ২ হাজার ৮৪১ জন পুরুষ ও ৭৫০ জন নারী মারা গেলেন। মৃতদের মধ্যে পুরুষের হার ৭৯ দশমিক ১১ শতাংশ, নারী ২০ দশমিক ৮৯ শতাংশ। আর ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে মারা গেছেন ৩৩ জন, বাড়িতে মারা গেছেন বাকি একজন।

বিজ্ঞাপন

২৪ ঘণ্টায় যারা করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন, তাদের মধ্যে ৩০ বছর বয়সের নিচে নেই একজনও। ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী দুই জন, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী চার জন, ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সী ছয় জন ও ৬০ বছরের বেশি বয়সী ২২ জন মারা গেছেন এই সময়ে। এ পর্যন্ত হিসাবে ৬০ বছরের বেশি বয়সীদের মধ্যে মৃত্যুর হার সবচেয়ে বেশি ৪৭ দশমিক ৭০ শতাংশ। আর মৃতদের মধ্যে ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সীদের হার ২৮ দশমিক ২৪ শতাংশ।

সারাবাংলা/এসবি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন