বিজ্ঞাপন

প্রাথমিকে শিক্ষকের শূন্য পদ পূরণে প্যানেল ব্যবস্থা চালুর সুপারিশ

August 27, 2020 | 11:24 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: প্রাথমিক স্কুলে সহকারী শিক্ষকের শূন্য পদ পূরণে প্যানেল ব্যবস্থা চালুর সুপারিশ করেছে জাতীয় সংসদের অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি।

বিজ্ঞাপন

বৈঠকে বলা হয়, প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষক পদ শূন্য থাকলে শিশুদের পড়ালেখায় ব্যাঘাত ঘটে। প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষক নিয়োগ সম্পন্ন করতে দীর্ঘ সময়ের প্রয়োজন হয়। শূন্য পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে করতে আরও শূন্য পদ তৈরি হয়। ফলে শূন্য পদের সমস্যা থেকেই যায়। প্যানেল ব্যবস্থা চালুর মাধ্যমে এই সমস্যা দূর করা সম্ভব।

বৃহস্পতিবার (২৭ আগস্ট) জাতীয় সংসদ ভবনে একাদশ জাতীয় সংসদের অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির অষ্টম বৈঠকে এই সুপারিশ করা হয়। বৈঠকে কমিটির সভাপতি মো. আব্দুস শহীদ সভাপতিত্ব করেন।

বিজ্ঞাপন

কমিটির সদস্য চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী, এ বি তাজুল ইসলাম, ফজলে হোসেন বাদশা, বজলুল হক হারুন, আহসান আদেলুর রহমান এবং ওয়াসিকা আয়শা খান বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া বৈঠকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিভিন্ন দফতর ও সংস্থার প্রধানসহ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং শিল্প মন্ত্রণালয়ের ২০১৯-২০ ও ২০২০-২১ অর্থবছরের চলমান প্রকল্পগুলোর ওপর আলোচনা করা হয়। আলোচনায় বলা হয়, বড় প্রকল্পগুলোর জমি অধিগ্রহণে দীর্ঘ সময় ব্যয় হয়। ফলে প্রায়ই দেখা যায় প্রকল্পগুলোর কাজ নির্দিষ্ট সময়ে শেষ করা সম্ভব হয় না। পরবর্তী সময়ে প্রকল্পের কাজ শেষ মেয়াদ বাড়াতে হয়, খরচও বাড়ে। প্রকল্পের খরচ যেন না বাড়ে, সে জন্য একটি প্রকল্পকে দু’টি ভাগে ভাগ করে দুইটি প্রকল্প হাতে নেওয়ার সুপারিশ করা হয়। এ পদ্ধিতিতে প্রথম ভাগে জমি অধিগ্রহণ, ভরাট ও বাউন্ডারি নির্মাণ এবং দ্বিতীয় ভাগে প্রকল্পটির বাকি উন্নয়ন কাজ রাখার সুপারিশ করা হয়।

বিজ্ঞাপন

আমদানি-রফতানির সঙ্গে বিএসটিআইর কার্যক্রমের সম্পর্ক রয়েছে জানিয়ে পায়রা বন্দরের কাছাকাছি বিএসটিআইয়ের একটি প্রকল্প প্রণয়নের সুপারিশ করে কমিটি।

বৈঠকের শুরুতে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এবং তাদের পরিবারের সদস্যসহ ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের শহিদ এবং করোনাভাইরাসে মৃতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন ও মোনাজাত করা হয়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এএইচএইচ/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন