বিজ্ঞাপন

ক্রসফায়ারের হুমকি: রাউজানের সাবেক ওসি’র বিরুদ্ধে মামলা

September 1, 2020 | 7:02 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: ক্রসফায়ারের ভয়ভীতি প্রদর্শন এবং ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে চট্টগ্রামের রাউজান থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কেফায়েত উল্লাহ এবং একজন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানসহ চার জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা হয়েছে। আদালত মামলা গ্রহণ করে বিচারিক তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রামের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আ স ম শহীদুল্লাহ কায়সারের আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। রাউজান উপজেলার পূর্ব গুজরা ইউনিয়নের আঁধারমানিক গ্রামের অরবিন্দু চৌধুরীর ছেলে রাজ গোপাল চৌধুরী মামলাটি দায়ের করেছেন।

মামলায় অভিযুক্তরা হলেন— বাদীর একই গ্রামের সুনীল দাশের ছেলে রাজীব দাশ, রাউজান থানা থেকে সদ্য বদলি হওয়া ওসি কেফায়েত উল্লাহ, পূর্ব গুজরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিন আহমেদ এবং রাউজান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) টুটুন মজুমদার।

বিজ্ঞাপন

বাদীর আইনজীবী দেলোয়ার হোসেন সারাবাংলাকে জানান, বাদীর বাবা অভিযুক্ত রাজীবের বাবার কাছ থেকে ৬১ শতক সম্পত্তি কিনে ভোগদখল করে আসছিলেন। সম্প্রতি রাজীব ওই সম্পদ জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা চালান। রাউজান থানার ওসি কেফায়েত ও এসআই টুটুন এবং ইউপি চেয়ারম্যান রাজীবকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিচ্ছিলেন বলে মামলার আরজিতে বাদী অভিযোগ করেছেন।

বাদী আরও অভিযোগ করেন, গত ১৩ আগস্ট বিকেলে এবং ১৪ আগস্ট সকালে দুই দফায় রাজীব বাদীর সম্পত্তিতে জোরপূর্বক প্রবেশ করে প্রায় ২ লাখ টাকা মূল্যের ৪৩টি গাছ কেটে ফেলে। এসময় পুলিশের হটলাইন নম্বর ৯৯৯-এ বাদী ফোন করলে তাকে শান্ত থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়। পুলিশের কাছ থেকে সহযোগিতা না পেয়ে বাদী বাধা দিতে গেলে তাকে মারধর করে একটি ঘরে আটকে রাখা হয়। পরে রাউজান থানার এসআই সুজন দে গিয়ে ঘরের তালা খুলে তাকে উদ্ধার করেন। অভিযুক্তরা পরস্পরের যোগসাজশে তার কাছ থেকে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। পুলিশের পক্ষ থেকে তাকে ক্রসফায়ারের হুমকি দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

আইনজীবী দেলোয়ার বলেন, ‘আদালত দণ্ডবিধির ৩২৩, ৩৬৫, ৩৮৫, ৩৭৯ ও ৫০৬ (২) ধারায় দায়ের করা অভিযোগকে মামলা হিসেবে গ্রহণ করেছেন। এরপর আদালত বিচারিক তদন্তের নির্দেশ দিয়ে আগামী ৭ সেপ্টেম্বর সরাসরি সাক্ষ্যগ্রহণের সময় নির্ধারণ করেছেন।’

সারাবাংলা/আরডি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন