বিজ্ঞাপন

বেওয়ারিশ কুকুর নিধনের প্রতিবাদে সড়কে রাজধানীবাসী

September 2, 2020 | 9:48 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) এলাকায় বেওয়ারিশ কুকুর নিধন ও অপসারণের উদ্যোগের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে পিপল ফর অ্যানিমেল ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন। সংগঠনটি বলছে, বন্ধ্যাত্বকরণের মাধ্যমেই কুকুরের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করা যায়। তাই কুকুর নিধন কিংবা অপসরণের উদ্যোগ যৌক্তিক নয়।

বিজ্ঞাপন

বেওয়ারিশ কুকুর নিধনের প্রতিবাদে সড়কে রাজধানীবাসী

বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ডিএসসিসি নগর ভবনের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনের সঙ্গে একাত্মতা জানিয়ে ‘অভায়রণ্য’ ও ‘এয়ার ফর ফগ’সহ বেশকিছু সামাজিক সংগঠন এতে অংশ নেয়। অংশ নেন বেশকিছু প্রাণীপ্রেমী।

বিজ্ঞাপন

মানববন্ধনে পিপল ফর অ্যানিমেল ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান স্থপতি রাকিবুল হক এমিল বলেন, প্রাণীকল্যাণ আইন-২০১৯ অনুযায়ী কুকুর অপসারণ ও নিধন— দু’টিই বেআইনি। যেহেতু আইন রয়েছে, তাই কুকুরদের অপসারণ করতে পারে না সিটি করপোরেশন। বরং কুকুর নিয়ে সঠিক জরিপ করতে হবে। কোন কোন অঞ্চলে কুকুর বেশি রয়েছে, মানুষের সঙ্গে কুকুরের সংঘাতটা আসলে কী নিয়ে— এসব বিষয়ে জরিপ করতে হবে। জরিপের ফল অনুযায়ী উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মতো বন্ধ্যত্বকরণ প্রকল্প হাতে নিতে হবে।

বেওয়ারিশ কুকুর নিধনের প্রতিবাদে সড়কে রাজধানীবাসী

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, এটা বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণিত— বন্ধ্যাত্বকরণের মাধ্যমেই কুকুরের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করা যায়। এর বাইরে জরিপের মাধ্যমে কুকুর ও মানুষের মধ্যে সংঘাতের বিষয়টির স্বরূপ উন্মোচন করতে হবে। সে অনুযায়ী প্রাণীকল্যাণ কর্মী ও সিটি করপোরেশনের কর্মীরা যৌথভাবে সচেতনাতামূলক প্রচার-প্রচারণা চালাতে পারবেন। কিন্তু কোনোভাবেই কুকুরকে স্থানান্তর বা নিধন করা যাবে না।

এমিল আরও বলেন, ডিএসসিসি’র স্বাস্থ্য বিভাগের জাতীয় জলাতঙ্ক নির্মূলে যে কর্মসূচি রয়েছে, তার আওতায় রাজধানীর কুকুরগুলো এক রাউন্ড টিকা পেয়েছে। এখন সিটি করপোরেশন বা পৌরসভার মতো স্থানীয় সরকারের যে বিভাগগুলো রয়েছে, তাদের স্বাস্থ্য বিভাগের সঙ্গে সমন্বয় করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তাদেরও টিকা কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

বেওয়ারিশ কুকুর নিধনের প্রতিবাদে সড়কে রাজধানীবাসী

‘মানুষ হইতে সাবধান’, ‘ডগ লাইভস ম্যাটার’, ‘কুকুর অপসারণ করা মাসে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করা’, ‘কুকুর অপসারণ নয়, বন্ধ্যা করে সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করুন’, ‘ঢাকা শুধু মানুষের শহর না, পশুপাখিদেরও শহর’, ‘কুকুর অপসারণ আইনের পরিপন্থী’— এমন বিভিন্ন বক্তব্য লেখা প্ল্যাকার্ড, ব্যানার, ফেস্টুন মানবন্ধনে অংশ নেন অংশগ্রহণকারীরা।

বিজ্ঞাপন

ছবি: সুমিত আহমেদ

সারাবাংলা/এসএইচ/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন