বিজ্ঞাপন

বেগম আখতার’র ‘জোছনা করেছে আড়ি’ থেকে চলচ্চিত্র ‘জোছনা’

September 3, 2020 | 7:17 pm

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপনডেন্ট

১৯২৭ সাল - মাত্র তেরো বছর বয়সে মা মুশতারি বাইয়ের হাত ধরে কলকাতায় আসেন আখতারি বাই ফৈজাবাদি নামের গান পাগল একটি কিশোরী। সঙ্গে তার গুরু ওস্তাদ আতা মোহাম্মদ খাঁ। মূলত আতা মোহাম্মদের পরামর্শেই তাদের কলকাতায় আসা। কেননা সে-সময় কলকাতা ছিল সংগীতেরই শহর, অনেক খ্যাতিমান শিল্পী এখানে তখন অবস্থান করতেন – বাঙালি শিল্পীরও অভাব ছিল না। ওস্তাদজির মতো মাও ভেবেছিলেন এই অনুকূল পরিবেশ আখতারির সংগীতশিক্ষা ও প্রতিভাবিকাশের জন্যে সহায়ক হবে। তাদের প্রত্যাশা ও অনুমান যে বিফল হয়নি- সেদিনের সেই কিশোরী একদিন হয়ে উঠেন ভারতীয় ক্লাসিক্যাল সঙ্গীতের অন্যতম সম্রাজ্ঞী- বেগম আখতার। তার গায়কির জন্য পেলেন বিশেষ উপাধি- ‘গজলের রানি’।

বিজ্ঞাপন

এমনই একজন কিংবদন্তিকে নিয়ে বাংলাদেশেই নির্মিত হচ্ছে স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি। এই প্রসিদ্ধ গায়িকার অতি জনপ্রিয় গান ‘জোছনা করেছে আড়ি’ থেকে ছবির নাম রাখা হয়েছে ‘জোছনা’। এই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করছেন রাশিদ পলাশ। আর এতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন মুক্তি।

এই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটি প্রসঙ্গে গণমাধ্যমে নির্মাতা রাশিদ পলাশ জানালেন, ‘কিংবদন্তি শিল্পী বেগম আখতার গজলের রানি। শাস্ত্রীয় সংগীতের জন্য স্মরণীয়। তার গাওয়া জোছনা করেছে আড়ি গানটি বাঙালিদের ঘরে ঘরে। এই গানটি শোনেননি এমন বাঙালি মিলবে না।’

বিজ্ঞাপন

রাশিদ পলাশ আরও জানালেন, ‘সম্প্রতি পুরান ঢাকার নারিন্দায় এই মিউজিক্যাল শর্টফিল্মটির শুটিং হয়েছে। এই ছবিতে বেগম আখতারের সেই গানটি গেয়েছেন শম্পা দাশ। সংগীতায়োজন করেছেন বিবেক। বর্তমানে সম্পাদনার টেবিলে রয়েছে এটি। ইউফোরসির ব্যানারে চলতি মাসের শেষ দিকে অনলাইনে মুক্তি দেওয়া হবে এই ছবিটি।’

হিন্দুস্তানি শাস্ত্রীয় সংগীতের গজল, দাদরা ও ঠুমরি গোত্রের এই গায়িকার জন্ম হয় ১৯১৪ সালে। প্রয়াত হন ১৯৭৪ সালে। বেগম আখতার গান গাওয়ার পাশাপাশি নয়টি চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছিলেন। ভারত সরকার এই গজলের রানিকে পদ্মশ্রী ও পদ্মভূষণ (মরণোত্তর) সন্মানে পুরস্কৃত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এএসজি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন