বিজ্ঞাপন

‘বিএনপি-জামায়াত আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রকারীদের এজেন্ট’

September 8, 2020 | 7:26 pm

সারাবাংলা ডেস্ক

চট্টগ্রাম ব্যুরো: বিএনপি-জামায়াতকে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রকারীদের এদেশীয় এজেন্ট বলে উল্লেখ করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। তিনি বলেন, ভাগ্য পরিবর্তনের লক্ষ্যে এদেশের মানুষ যখনই ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন, তখনই আন্তর্জাতিক অপশক্তির সঙ্গে হাত মিলিয়ে বিএনপি-জামায়াত তাদের পেছনে ঠেলে দিয়েছে। ধর্মকে পুঁজি করে হত্যা-সন্ত্রাস চালিয়েছে। আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রকারীদের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করেছে বিএনপি-জামায়াত। তারা শান্তি, সম্প্রীতি ও মৈত্রীর শত্রু।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) নগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বাগমনিরাম, জামালখান, চকবাজার ও নাসিরাবাদ শিল্পাঞ্চল সাংগঠনিক ওয়ার্ডে বৃক্ষরোপণ ও চারা বিতরণ কর্মসূচিতে দেওয়া বক্তব্যে এসব কথা বলেন সাবেক মেয়র নাছির।

পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের দিয়ে চট্টগ্রাম নগরীতে তৃণমূলে আওয়ামী লীগের কমিটি গঠনের কথা জানিয়ে নাছির বলেন, ‘চট্টগ্রাম মহানগরীতে আওয়ামী লীগের শক্তিশালী ঘাঁটি গড়ে তুলতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দিয়েছেন, নির্বাহী কমিটিতে যারা সম্পাদকমণ্ডলীতে বিভিন্ন পদে আছেন, তাদের প্রত্যেককেই পদ-পদবী অনুযায়ী সাংগঠনিক কার্যক্রম চালিয়ে যেতে হবে। যিনি যে দায়িত্বে আছেন পদ অনুযায়ী সেই দায়িত্ব পালনে শতভাগ নিবেদিত হতে হবে।’

বিজ্ঞাপন

একই অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘জাতির ক্রান্তিকালে যেকোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে এগিয়ে গেছে আওয়ামী লীগ। কোনো পরিস্থিতিতেই আওয়ামী লীগ ছিটকে পড়েনি। অতীতের অভিজ্ঞতাকে ধারণ করেই আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।’

নগর আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরীর সঞ্চালনায় স্বনির্ভর ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত বৃক্ষরোপণ ও চারা বিতরণ কার্যক্রমে বিভিন্নস্থানে সভাপতিত্ব করেন যথাক্রমে বাগমনিরাম ওয়ার্ডের গিয়াস উদ্দিন, চকবাজার ওয়ার্ডের আমিনুল হক রঞ্জু, জামাল খান ওয়ার্ডের আবুল হাসেম বাবুল এবং নাসিরাবাদ শিল্পাঞ্চলের ওয়ার্ডের আবদুল মান্নান।

বিজ্ঞাপন

এসময় বক্তৃতা করেন নগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য শফর আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ ও চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক হাজী মোহাম্মদ হোসেন, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক দিদারুল আলম চৌধুরী, কার্যনির্বাহী সদস্য সৈয়দ আমিনুল হক, সাইফুদ্দীন খালেদ বাহার, হাজী বেলাল আহমদ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আবুল বশর, মোজাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, মিথুন বড়ুয়া, মোহাম্মদ সাহাব উদ্দীন, শাহজাহান রতন, নোমান চৌধুরী, সাবেক কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন, মোরশেদুল আলম এবং আঞ্জুমান আরা।

সারাবাংলা/আরডি/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন