বিজ্ঞাপন

ফেসবুকে বাবার কান্না: শিশু ধর্ষণের মামলা তুলে নিতে হত্যার হুমকি

September 16, 2020 | 9:35 am

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরে এক শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলা তুলে নিতে শিশুটির বাবাকে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ধর্ষণে অভিযুক্ত ব্যক্তির স্বজনসহ স্থানীয় প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে জিডি করা হয়েছে। দুদিন আগে জিডি করা হলেও প্রতিকার না পেয়ে ফেসবুক লাইভে এসে কান্নায় ভেঙে পড়েন ধর্ষণের শিকার শিশুটির বাবা। ভুক্তভোগীদের বাড়ি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলায়।

বিজ্ঞাপন

শিশুটির বাবা বলেন, ‘গত ৩ আগস্ট মেয়েকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে একটি ঘরে নিয়ে যায় বাদশা নামে এক ব্যক্তি। সেখানে সে ভয় দেখিয়ে মেয়েকে ধর্ষণ করে। এ সময় মেয়ের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। এরপর থানায় মামলা হলে পুলিশ বাদশাকে গ্রেফতার করে।’

তিনি বলেন, ‘ঘটনার পর থেকে মেয়েকে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। তবে এখনও সেরে ওঠেনি। মেয়েটি এখনও ভয়ে কেঁদে ওঠে। এদিকে মামলাটি তুলে নেওয়ার জন্য প্রভাবশালীদের চাপ রয়েছে। মেয়েসহ আমাকে হত্যার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এ জন্য আমি গত রোববার সদর থানায় পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে জিডি করেছি। জিডি করলেও প্রশাসনের কাছ থেকে কোনো প্রতিকার পাইনি। উল্টো হুমকি পাচ্ছি। এতে দুশ্চিন্তায় থাকতে হচ্ছে। বাধ্য হয়ে ফেসবুকে এসে বিচার চাইছি।’

শিশুটির মা বলেন, ‘মেয়েটি সুস্থ হয়নি এখনও। লোকলজ্জার ভয়ে বাড়িতেই থাকতে হচ্ছে। তার ওপর বাড়ি থেকে বের হলেই মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দিচ্ছে ধর্ষক বাদশার ছেলে কামাল, আল আমিন, বাদশার স্ত্রী রতিমা, মেয়ে কুলছুমসহ স্থানীয় এক প্রভাবশালী। ফলে বিচার চেয়ে এখন থাকতে হচ্ছে নানা আতঙ্কে।’

বিজ্ঞাপন

এদিকে হুমকির অভিযোগ অস্বীকার করে ধর্ষকের স্ত্রী রতিমা বেগম জানান, তার স্বামী ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার হওয়ার পর থেকে সমাজে তারা মুখ দেখাতে পারছেন না। অন্যায় করলে তিনিও স্বামীর বিচার চান। অভিযুক্ত বাদশার ছেলে আলামিন বলেন, ‘এ ধরনের কাজ যেই করুক তার শাস্তি হওয়া উচিত।’

তবে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান জানান, বাদী ও তার পরিবারকে হুমকির বিষয়ে জিডি করা হয়েছে। হুমকিদাতাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ।

সারাবাংলা/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন