বিজ্ঞাপন

সীমান্তে যে কারণে লাউডস্পিকার ব্যবহার করছে চীন

September 18, 2020 | 12:24 am

ফিচার ডেস্ক

ভারত-চীন সীমান্তের লাদাখ অঞ্চলের একটি পয়েন্টে লাউডস্পিকারে পাঞ্জাবি গান বাজাচ্ছে চীনের সেনারা। এছাড়া এসব লাউডস্পিকারে মোদি সরকারের বিরুদ্ধেও প্রচারণা চালানো হচ্ছে। ভারতের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে হলা হয়, ভারতীয় সেনাদের মানসিক চাপে রাখতে এমন কৌশল নিয়েছে চীন। ওই পয়েন্টে ভারত ও চীনের সেনারা মুখোমুখি অবস্থানে টহলরত অবস্থায় রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

জানা যায়, সম্প্রতি অতি উত্তেজনাপূর্ণ লাদাখ সীমান্তে জনপ্রিয় সব পাঞ্জাবি গান বাজাতে থাকে চীনের সেনারা। এর আগে ১৯৬২ সালে চীন-ভারত যুদ্ধের আগে চীনের সেনারা সীমান্তে নিয়মিত বলিউডের জনপ্রিয় সঙ্গীত পরিবেশন করত।

ভারতীয় বিশেষজ্ঞরা চীনের এবারের তৎপরতার ব্যাপারে বলছেন, এ ধরনের কর্মকাণ্ড মূলত ভারতীয় সেনাদেরকে মানসিকভাবে চাপে রাখারই কৌশল। এছাড়া ভারতের সরকারবিরোধী যেসব প্রচারণা চালানো হচ্ছে তার উদ্দেশ্য হলো- সেনাবাহিনীর মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা। উল্লেখ্য, চীনের তরফ থেকে লাউডস্পিকারে যে বার্তা দেওয়া হচ্ছে তার অর্থ হলো— মোদি সরকার চীনের যে অঞ্চল দাবি করছে তার ফল ভোগ করতে হবে ভারতের সেনাবাহিনীকেই। খবর ইন্ডিয়া টুডে

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য, ভারত এবং চীনের মধ্যে প্রায় ৩ হাজার ৫০০ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্ত এলাকা রয়েছে। পরমাণু ক্ষমতাসম্পন্ন দুই প্রতিবেশীর এ সীমান্তে সম্প্রতি উত্তেজনা বিরাজ করছে। বছরের শুরু থেকেই সীমান্তে দুই শক্তিশালী সেনাবাহিনী মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছে। এর আগে গেল মে মাসে দুই দেশের প্রায় শতাধিক জওয়ান হাতাহাতি সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছিলেন। সে সময় উভয় দেশের জওয়ানরা জখম হয়েছিলেন। পরে ১৫ জুন রাতে লাদাখের গলওয়ান উপত্যকায় এক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে দুই দেশের বহু সেনা হতাহতের ঘটনা ঘটে।

সারাবাংলা/আইই

বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন