বিজ্ঞাপন

কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেল আর্ট কলেজ শিক্ষার্থীর

September 22, 2020 | 1:54 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেলেন ঢাকা আর্ট কলেজের শিক্ষার্থী রাদিয়া নীতি। সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ভাটারা আমেরিকান গ্যারেজের সামনে রাস্তা পারাপারের সময় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন। পরে  কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক রাত ৮টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিজ্ঞাপন

রাদিয়া নীতির বাড়ি মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার বহেরাতলা গ্রামে। পরিবারের সঙ্গে তিনি ভাটারা নতুন বাজার প্রিন্সিপাল রোডে থাকতেন। দুই বোন এক ভাইয়ের মধ্যে তিনি ছিলেন সবার বড়।

নিহতের ছোট বোন সাদিয়া রেজা তন্নি জানান, রাদিয়া রায়ের বাজার ঢাকা আর্ট কলেজে তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। পড়াশোনার পাশাপাশি বিভিন্ন জায়গায় আর্টের অর্ডার নিতেন। চলতি মাসেই পল্টনের একটি রুম ডেকোরেটিংয়ের কাজ করছিলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

সোমবার সকালে ছোট ভাই রিফাতকে নিয়ে বাসা থেকে বের হন। পরে রিফাতকে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে দিয়ে পল্টনের কাজে যান। সন্ধ্যায় কাজ শেষ করে বাসে করে বাসায় ফিরছিলেন রাদিয়া। নতুনবাজার আমেরিকান গ্যারেজের সামনে বাস থেকে নেমে রাস্তা পার হবার সময় একটি কাভার্ডভ্যান তাকে ধাক্কা দেয়।

ভাটারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুক্তারুজ্জামান জানান, দুর্ঘটনায় কাভার্ডভ্যানটি জব্দ ও চালককে আটক করা হয়েছে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

রাদিয়ার সিনিয়র সহপাঠি সাঈদা মাশরুক  বলেন, ‘রাদিয়া আমার এক বছরের জুনিয়র ছিল। কিন্তু কলেজে আমরা বন্ধুর মতো চলাফেরা করতাম। ও আর্টে খুব ভালো ছিল। কিছুদিন আগে আমরা মগবাজারে চারুপাঠ আর্ট একাডেমিতে কাজ শুরু করি। পাশাপাশি রাদিয়া বিভিন্ন বাসায় কাজের অর্ডারও নিত।’

রাদিয়ার বাবা রেজাউল করিম বলেন, ‘আমার স্বপ্ন এক নিমিষেই শেষ হয়ে গেল। মেয়েকে নিয়ে আমার অনেক স্বপ্ন ছিল। আমার মেয়ে পড়াশোনায় খুব ভালো ছিল। সে খুব ভালো ছবি আঁকতো। অল্প সময়েই ভালো আঁকতো বলে বিভিন্ন জায়গা থেকে অর্ডারও পেত।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএসআর/টিসি

বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন