বিজ্ঞাপন

পুলিশের দক্ষতা বাড়াতে সবই করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

September 22, 2020 | 7:18 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: পুলিশের দক্ষতা বাড়াতে যা কিছু করা দরকার, পুলিশ স্টাফ কলেজের মাধ্যমে তার সবকিছু করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে,। সঙ্গত কারণে পুলিশকেও এগিয়ে নিতে হবে। পুলিশের দক্ষতা ও সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য যা যা করা দরকার, পুলিশ স্টাফ কলেজের মাধ্যমে তার সবই বাস্তবায়ন করা হবে।

মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পুলিশ স্টাফ কলেজের ১৭তম বোর্ড সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বোর্ড সভা শেষে বিকেল সাড়ে ৩টায় সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। এসময় উপস্থিত ছিলেন পুলিশ স্টাফ কলেজের রেক্টর অতিরিক্ত আইজিপি শেখ মুহম্মদ মারুফ হাসান।

বিজ্ঞাপন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পুলিশ স্টাফ কলেজে আজকে ১৭তম বোর্ড সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোভিডসহ অন্যান্য কারণে বোর্ড সভা দেরিতে অনুষ্ঠিত হলো। আমরা পর্যালোচনা করেছি, বোর্ড সভায় নতুন যেসব প্রস্তাবনা এসেছিল সেগুলো আমরা দেখেছি। যেসব প্রস্তাব বোর্ড সভায় উত্থাপন করা হয়েছে, এর সবগুলোই আমাদের কাছে যুক্তিযুক্ত মনে হয়েছে। এগুলোকে বাস্তবায়নের জন্য আমরা সামনে নিয়ে আসার জন্য আলোচনা করেছি।

তিনি বলেন, বিধিমালা স্পষ্টীকরণ এবং নীতিমালার দুয়েকটি জায়গায় পরিবর্তন আসবে। বোর্ড সভা যেসব প্রোপজাল দিয়েছে, আমরা সেগুলো নিয়ে পর্যালোচনা-আলোচনা করছি। পুলিশ স্টাফ কলেজের রেক্টর পদকে উন্নতিকরণ, ভাইস রেক্টর নামে নতুন পদ তৈরি করা, নতুন পদ তৈরি হলে সেটি কিভাবে সৃজিত হবে— সেগুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

মন্ত্রী জানান, পুলিশ স্টাফ কলেজে বিভিন্ন নতুন কোর্স সংযুক্ত করা হয়েছে। সম্প্রতি নতুন নতুন অপরাধ হচ্ছে, যার অধিকাংশ সাইবার ওয়ার্ল্ডে। সেজন্য পুলিশকে প্রশিক্ষিত করার দরকার। সেজন্য নতুন করে সাইবার সিকিউরিটির ওপর ডিপ্লোমা কোর্স চালু করা হয়েছে। এর বাইরে আরও বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে ডিপ্লোমা কোর্স চালু করা হচ্ছে। সবগুলো করছে বর্তমান প্রয়োজনে কাজে আসবে।

পুলিশ জানায়, পুলিশের পেশাগত উচ্চতর শিক্ষা কার্যক্রম, ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের জন্য অপরাধ ও সমসাময়িক বিষয়ে উচ্চতর প্রশিক্ষণ, অপরাধ ও সমসাময়িক ইস্যুভিত্তিক গবেষণা পরিচালনা, পুলিশিং কার্যক্রমের ওপর প্রকাশনাসহ নানা বিষয় ছিল বোর্ড সভার আলোচনার ইস্যু। সভায় কলেজের আইন ও বিধি সংশোধন, শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ এবং কলেজের উন্নয়ন বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

বিজ্ঞাপন

সভায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে ‘Bangabandhu’s Vision of Law Enforcement: Policing in Bangladesh’ শীর্ষক গবেষণা প্রকল্প বাস্তবায়নের ওপর বিস্তারিত আলোচনা হয়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব, আইজিপি, অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব, বিপিএটিসি’র রেক্টর, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব, মিরপুর ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড অ্যান্ড স্টাফ কলেজের কমান্ড্যান্ট, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিবসহ অন্যরা।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/ইউজে/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন