বিজ্ঞাপন

চসিক প্রশাসকের ১৭ সদস্যের পরামর্শক কমিটি, রয়েছেন নাছিরও

September 25, 2020 | 9:09 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: সাবেক দুই মেয়র ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার বিশিষ্ট নাগরিকদের নিয়ে ১৭ সদস্যের পরামর্শক কমিটি করেছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন। নগরবাসীর সেবায় তাদের পরামর্শ গুরুত্ব দিয়ে গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বসছে পরামর্শক কমিটির প্রথম সভা। নগরীর টাইগারপাসে চসিক প্রশাসকের কার্যালয়ে সকাল সাড়ে ১১টায় এই সভা অনুষ্ঠিত হবে। পরামর্শক কমিটির প্রধান করা হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক মুখ্য সচিব ও সরকারি সংস্থা পিকেএসএফ’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুল করিমকে।

কমিটির বাকি সদস্যরা হলেন- সাবেক মেয়র মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী ও আ জ ম নাছির উদ্দীন, নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, দৈনিক আজাদীর সম্পাদক এম এ মালেক, দৈনিক পূর্বকোণের সম্পাদক ডা. ম রমিজ উদ্দিন চৌধুরী, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড অ্যানিমেল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ, নৌবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জোবায়ের আহমেদ, নগর পরিকল্পনাবিদ স্থপতি আশিক ইমরান, মুক্তিযোদ্ধা ও পুলিশের সাবেক আইজি মো. নুরুল আলম, কেডিএস গ্রুপের চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান, শিক্ষাবিদ হাসিনা জাকারিয়া, ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের সভাপতি প্রবীর কুমার সেন, বিএসআরএম গ্রুপের পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার আলী আহমেদ, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি আলী আব্বাস ও চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোহাম্মদ আলী এবং বিজিএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি এম এ সালাম।

বিজ্ঞাপন

১৭ সদস্যের এই কমিটিতে রাখা হয়নি বিএনপি দলীয় সাবেক দুই মেয়র মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দীন এবং এম মনজুর আলমকে।

জানতে চাইলে চসিক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন সারাবাংলাকে বলেন, ‘আপাতত ১৭ সদস্যের পরামর্শক কমিটি করেছি। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রথম এবং সর্বশেষ মেয়রকে রেখেছি। পত্রিকার সম্পাদকদের মধ্যে দুই জনকে রেখেছি। সাংবাদিক সংগঠন থেকে দুজনকে রেখেছি। সবাইকে রাখতে গেলে কমিটির আকার অনেক বড় হয়ে যাচ্ছে। সেজন্য দুজন করে রেখেছি। তবে ভবিষ্যতে কমিটির সদস্য আরও বাড়তে পারে। আমরা নিয়মিত উনাদের সঙ্গে বসব। উনাদের যেকোনো মতামত আমরা সাদরে গ্রহণ করবো।’

বিজ্ঞাপন

১৯৯০ সালের ৩১ জুলাই চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন গঠনের পর প্রথম মেয়র নিযুক্ত করা হয় জাতীয় পার্টির নেতা মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরীকে। ১৯৯১ সালে বিএনপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর বিএনপি নেতা মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দীন মেয়র নিযুক্ত হন। ১৯৯৩ সালের ২১ ডিসেম্বর থেকে ১৯৯৪ সালের ১০ মার্চ পর্যন্ত প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন তৎকালীন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার ওমর ফারুক।

১৯৯৪ সালে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতা এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী মেয়র নির্বাচিত হন। টানা ১৭ বছর মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন মহিউদ্দিন। এরপর ২০১০ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে মেয়র হন বিএনপির এম মনজুর আলম। সর্বশেষ ২০১৫ সালের সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হন আ জ ম নাছির উদ্দীন।

বিজ্ঞাপন

গত ২৯ মার্চ চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। নির্বাচন না হওয়ায় ১৮০ দিনের জন্য অর্ন্তবর্তীকালীন প্রশাসক নিযুক্ত করা হয়েছে খোরশেদ আলম সুজনকে। গত ৬ আগস্ট তিনি দায়িত্ব নেন।

সারাবাংলা/আরডি/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন