বিজ্ঞাপন

ধর্ষকদের অবিলম্বে গ্রেফতার করুন: রিজভী

September 27, 2020 | 4:30 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সিলেটে এমসি কলেজ ছাত্রবাসে তরুণী ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত ছাত্রলীগ কর্মীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন সাবেক ছাত্রনেতা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বিজ্ঞাপন

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ দাবি জানান। জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল এ মানববন্ধন আয়োজন করে।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘কোনো কারণ ছাড়াই মিথ্যা মামলায় অভিযুক্ত বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ টর্চলাইট দিয়ে খোঁজে। ঘটনা ঘটুক বা না ঘটুক গায়েবি মামলায় আসামি বানিয়ে মুহূর্তের মধ্যে বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করে। কিন্তু সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রবাসে এক তরুণী ছাত্রলীগ দ্বারা ধর্ষণের শিকারের পর কয়েকদিন পেরিয়ে গেলেও কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। অবিলম্বে ধর্ষকদের গ্রেফতার করুন। নইলে যে আন্দোলনের সূচনা হয়েছে, সেটি আপনাদের পতন তরান্বিত করবে।’

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘বিএনপির চেয়ারপারসন আপসহীন নেত্রী খালেদা জিয়াকে কেন সাজা দেওয়া হয়েছে, তারেক রহমানকে কেন মিথ্যা মামলায় সাজা দেওয়া হয়েছে? কারণ, শেখ হাসিনা এমন এক রাজত্ব কায়েম করবে, যেখানে তার সোনার ছেলেরা যাকে পছন্দ হয় তাকে নিয়ে ধর্ষণ করবে। এই কারণেই বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেওয়া হয়েছে, এই কারণেই তারেক রহমানকে নির্যাতন করা হয়েছে।’

রিজভী বলেন, ‘আওয়ামী লীগের ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগ ২ হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছে। আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের লুটপাট নির্বিঘ্নে চলবে, কেউ যেন প্রতিবাদ করতে না পারে, বর্জকণ্ঠ যেন ইথারে ইথারে ভেসে না ওঠে, এই কারণেই খালেদা জিয়া বন্দি, তারেক রহমান নির্বাসনে।’

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগের অবস্থা একন এমন হয়েছে— ‘তোরা যে যা বলিস ভাই, আমরা সোনার হরিণ চাই। অর্থাৎ বিরোধীদল, বিরোধীমত তোরা যাই বলিস আমার সোনার হরিণের ক্ষমতা, আর আমার সোনার ছাত্রলীগ-যুবলীগের যা খুশি তাই করার সুযোগ আমার চাই-ই, চাই। এতে করে দেশ গোল্লাই যাক, ধর্ষণে ধর্ষণে চারদিকে মা-বোনদের হাহাকার উঠুক, তাতে আওয়ামী লীগের কিছু আসে, যায় না।’

মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সাবেক ছাত্রনেতা বিএনপির প্রচার বিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামলসহ অনেকে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এজেড/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন