বিজ্ঞাপন

বিসিবি’র চূড়ান্ত ঘোষণা: শ্রীলঙ্কা সিরিজ আপাতত হচ্ছে না

September 28, 2020 | 3:46 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

কয়েকদিন অপেক্ষার পর অবশেষে চূড়ান্ত ঘোষণা এলো। টাইগারদের শ্রীলঙ্কা সিরিজ নিয়ে শঙ্কার যে কালো মেঘ দেখা দিয়েছিল তা কেটে গেছে। করোনা অতিমারির কারণে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে শ্রীলঙ্কা সফর আপাতত হচ্ছে না বলে ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবি। সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিসিবি'র কার্যালয়ে লঙ্কা সফর নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো সংবাদসম্মেলনে এই ঘোষণা দেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

বিজ্ঞাপন

বিসিবি প্রেসিডেন্ট বলেন, 'আমি যেটা বলেছিলাম যে ওরা যে গাইডলাইনটা দিয়েছে এই গাইডলাইন অনুযায়ী টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ খেলা সম্ভব না। তারপরে ওদের ক্রিকেট বোর্ড, ক্রীড়া মন্ত্রণালয় অনেক চেষ্টা করেছে। আমাদের ন্যূনতম চাহিদাটা আমরা পাঠিয়েছিলাম। ওরা একটা ছাড়া বাকি সবগুলোতেই সম্মতি দিয়েছে। কিন্তু যে একটায় দিতে পারেনি ওটাই আসল। সেটা হচ্ছে ১৪ দিনের যে কোয়ারেনটাইন। এই অবস্থায় খেলা সম্ভব না এটা আমরা আগেই বলে দিয়েছ।'

তবে কেবল কোয়ারেনটাইন নিয়েই বিসিবি বসের উদ্বেগ নয়, উদ্বেগটা আসলে কোয়ারেনটাইনের ধরন নিয়ে। এ ব্যাপারটা খোলাসা পাপন নিজেই করেছেন, 'সাধারণত কোয়ারেনটাইন ও আইসোলেশন দুইটা দুই জিনিস হিসেবে আমরা ধরি। যদি হোম কোয়ারেনটাইন ধরি তাহলে বাসা থেকে বের হতে পারবে না। কিন্তু কোভিড পজিটিভদের ক্ষেত্রে আইসোলেশন যদি ধরি তাহলে বাসা নয়, ঘর থেকেই সে বের হতে পারবে না। ওদের এখানটায় পুরোপুরি আইসোলেশন। যেটাকে ওরা কেয়ারেনটাইন বলছে অন্য জায়গায় যে কোয়ারেনটাইন তার সঙ্গে এটার অনেক পার্থক্য, পুরোদস্তুর আইসোলেশন। ওই আইসোলেশনে কোনোভাবেই ঘর থেকে বের হওয়া সম্ভব নয়। এই অবস্থায় ১৪ দিন আইসোলেশনে থাকা, থাকলে ফিটনেস তো পরে মানসিক যে দুরবস্থার সৃষ্টি হবে ওটা থেকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে অনেক সময় লাগবে।'

বিজ্ঞাপন

পাপন আরও যোগ করেন, 'আইসোলেশনে কোনোভাবেই ঘর থেকে বের হওয়া সম্ভব নয়। এই অবস্থায় খেলা সম্ভব না এটা আমরা আগেই বলে দিয়েছি। এটা যে শুধু আমাদের জন্য করেছে তা নয়। যত ট্যুরিস্ট যাচ্ছে সবার জন্যই করেছে। আমরা যেটা বলেছি ওদের পক্ষে সম্ভব না। ওদের দেশে এটাই আইন। ওদের কাছ থেকে গতকালই এটা পেয়েছি। আজকে জানিয়ে দিয়েছি যে এই মুহূর্তে সিরিজ খেলা সম্ভব না। যখন পরিস্থিতি ভালো হবে যখন এই ধরনের পরিস্থিতি থাকবে না তখন আমরা খেলব।'

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন