বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্র ফিরে যাচ্ছেন সাকিব

October 1, 2020 | 12:40 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

মার্কিন মুলুক থেকে যে উদ্দেশ্যে সাকিব আল হাসান দেশে ফিরেছিলেন এর কোনোটিই তার পূরণ হয়নি। না হয়েছে শ্রীলঙ্কা সিরিজে খেলা, না পাচ্ছেন লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগে (এলপিএল) খেলার সুযোগ। সম্ভবত সেকারণেই পরিবারের সান্নিধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেই ফিরে যাচ্ছেন দেশ সেরা এই অলরাউন্ডার।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১ অক্টাবর) সারাবাংলাকে এখবর নিশ্চিত করেছেন সাকিব আল হাসানের মেন্টর ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক ন্যাশনাল গেম ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার নাজমুল আবেদীন ফাহিম।

তিনি বলেছেন, ‘হ্যাঁ, ও আজই যাচ্ছে । আমাকে তো তাই বলল।’

বিজ্ঞাপন

কখন যাচ্ছে? প্রতিবেদকের করা এমন প্রশ্নে তার উত্তর ছিল, ‘ঠিক বলতে পারছি না। আমি জানতে চাইনি।’ তবে বিষয়টি জানা গেল বিসিবি'র বিমানবন্দর সমন্বয়ক ওয়াসিম খানের কাছ থেকে, ‘ও আজ রাত ৩ টা ৪৫ মিনিটে কাতার এয়ারওয়েজে যাচ্ছে।’

গত ২ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরেছিলেন সাকিব আল হাসান। ফিরেই লঙ্কা সিরিজের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করার লক্ষ্যে চলে গেছেন বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (বিকেএসপি)। অনুশীলনের জন্য তিনি বিকেএসপি বেছে নিয়েছিলেন কারণ নিষেধাজ্ঞাকালীন সময়ে তিনি বিসিবি'র কোনো অবকাঠামো ব্যবহারের সুযোগ পাবেন না। যা হোক প্রায় ১ মাসেরও বেশি সময় সেখানে চলেছে তার রুদ্ধদ্বার অনুশীলন। লক্ষ্য ছিল শ্রীলঙ্কা সিরিজ ও লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগে খেলা। কিন্তু আখেরে দুটির কোনোটিই হলো না।

বিজ্ঞাপন

শ্রীলঙ্কা সিরিজে খেলা হলো না কারণ, অতিমারির সময়ে লঙ্কান সরকারের বেঁধে দেওয়া ১৪ দিনের কোয়ারেনটাইনের নিয়মের সঙ্গে একমত পোষণ করেনি বিসিবি। আর লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগে খেলা হল না কারণ ঘরোয়া ক্রিকেটে তার অংশগ্রহন নিশ্চিত করতে সেখানে খেলতে বিসিবি তাকে অনাপত্তি পত্র (এনওসি) দিবে না। সেকারণেই বোধ হয় আবার পরিবারের কাছে ফিরে যাওয়াকেই ঢেঢ় যুক্তিযুক্ত মনে করেছেন।

জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করায় সব ধরনের ক্রিকেট থেকে আইসিসি কর্তৃক এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ সাকিব আল হাসান। আগামী ২৯ অক্টোবর তার এই নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন