বিজ্ঞাপন

সালাউদ্দিন-মানিক আছেন, ‘লাপাত্তা’ বাদল রায়

October 3, 2020 | 4:21 pm

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সকাল থেকেই বাফুফে নির্বাচনকে ঘিরে প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলজুড়ে একটা নির্বাচনী বাতাস বইছে। চার বছর পর অনুষ্ঠিতব্য এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সকাল থেকেই ডেলিগেট-প্রার্থীদের পদচারণায় মুখরিত ভোটকেন্দ্র। তবে সভাপতি প্রার্থী কাজী সালাউদ্দিন আর শফিকুল ইসলাম মানিক ভোটকেন্দ্রে উপস্থিত থাকলেও ইউটার্ন নিয়ে ভোটযুদ্ধে নামা বাদল রায় সকাল থেকেই লাপাত্তা।

বিজ্ঞাপন

সকালে অনুষ্ঠিত বাফুফের সাধারণ বার্ষিক সভায়ও (এজিএম) উপস্থিত ছিলেন না ফেডারেশনের সহ-সভাপতি বাদল রায়।

নির্বাচনের প্রস্তুতিসহ প্রার্থীদের প্রচারণা যেখানে শেষ হয়েছে বৃহস্পতিবারই। সেখানে শুক্রবার হঠাৎ করেই নির্বাচনে ইউটার্ন নিয়েছেন বাদল রায়। প্রথমে মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিয়ে পরে নিজেকে সমন্বয় পরিষদের সভাপতি প্রার্থী দাবি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় নির্বাচনে ফেরার বিষয়টি জানান বাদল রায়।

বিজ্ঞাপন

নির্বাচনে ফিরলেও ভোটকেন্দ্রে সকাল থেকেই লাপাত্তা বাদল রায়। অন্যদিকে দুই সভাপতি প্রার্থী কাজী সালাউদ্দিন ও শফিকুল ইসলাম মানিক ভোটকেন্দ্রে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। নির্বাচন বা এজিএম নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি সালাউদ্দিন। মানিক নির্বাচনে জয়ী হওয়ার ব্যাপারে নিজের আত্মবিশ্বাসের কথা ব্যক্ত করেন।

গতকাল রাতে বাদল রায় নিজেকে সমন্বয় পরিষদের সভাপতি হিসেবে ঘোষণা করার বিষয়টি নির্বাচনের একটা অপকৌশল মনে করেন সভাপতি প্রার্থী শফিকুল ইসলাম মানিক। তবে জয়ের ব্যাপারে তিনি আশাবাদী।

বিজ্ঞাপন

মানিক বলেন, ‘আমি জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। আমি মনে করি ভোটাররা আমার উপর আস্থা রাখবেন। আর তাদের প্রতিও আমার আস্থা আছে। যদি সুষ্ঠু ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় তাহলে আমি জিতবো। বাকিটা ভোট হলেই বোঝা যাবে।’

এদিকে সারাদিন কোনো খোঁজ না পাওয়া গেলে তাকে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে বাদল রায় জানান, ‘বিকেলে আসবো।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/জেএইচ/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন