বিজ্ঞাপন

অযোধ্যায় মসজিদ তৈরিতে প্রথম অনুদান দিলেন একজন হিন্দু

October 4, 2020 | 7:02 pm

ফিচার ডেস্ক

ভারতের অযোধ্যায় মসজিদ নির্মাণ প্রকল্পের জন্য প্রথম আর্থিক অনুদান দিয়েছেন লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের কর্মকর্তা রোহিত শ্রীবাস্তব। মসজিদ নির্মাণে একজন হিন্দু ধর্মাবলম্বীর অনুদানকে ভারতে আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত বলে আখ্যায়িত করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

ভারতের সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস এক প্রতিবেদনে জানায়, বিকল্প বাবরি মসজিদ নির্মাণ প্রকল্পে ২১ হাজার রুপি অনুদান দিয়েছেন রোহিত শ্রীবাস্তব। অনুদানের চেক গ্রহণ করেন সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের আওতাধীন ইন্দো-ইসলামিক কালচারাল ফাউন্ডেশন মহাসচিব আতহার হুসাইন।

ট্রাস্টের মহাসচিব আতাহার হোসেন বলেন, “মসজিদ নির্মাণের জন্য প্রথম আর্থিক অনুদান এসেছে একজন হিন্দু ভাইয়ের কাছ থেকে। এটি ইন্দো-ইসলামিক সংস্কৃতির উৎকৃষ্ট একটি নমুনা”।

বিজ্ঞাপন

লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের কর্মকর্তা রোহিত শ্রীবাস্তব তার দেওয়া অনুদান প্রসঙ্গে বলেন, “আমার বেতন থেকে ২১ হাজার রুপি অনুদান দিয়েছি। এর মাধ্যমে আমি ধর্মীয় সম্প্রীতির বার্তা দিতে চাই। বিশেষ করে সাম্প্রদায়িক বিভেদ ও অসহিষ্ণুতার এই সময়ে একতাবদ্ধ হওয়ার বার্তা দিতে চাই সবাইকে”।

রোহিত শ্রীবাস্তব আরও বলেন, “আমি হলি বা দীপাবলি আমার মুসলিম বন্ধুদের ছাড়া উদযাপন করিনা। আর আমার মুসলিম বন্ধুরাও আমাকে ছাড়া ঈদ উদযাপন করে না। এটি শুধু আমাদের ব্যাপারে নয়, এটি মূলত ভারতের কোটি কোটি হিন্দু ও মুসলিমের গল্প”।

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য, ১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর বিশ্ব হিন্দু পরিষদ এবং তাদের সহযোগী সংগঠনের কর্মীরা বাবরি মসজিদ গুড়িয়ে দেয়। যার ফলে পুরো ভারত জুড়েই দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে। এই দাঙ্গায় ভারতে প্রায় ২০০০ মানুষ মারা যায়। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে নতুন একটি মসজিদ নির্মাণের জন্য ২৫ কিলোমিটার দূরে বিকল্প বাবরি মসজিদ নির্মাণের জন্য জমি বরাদ্দ হয়।

সারাবাংলা/আইই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন